আওয়ামী লীগের পায়ের নিচে মাটি নেই: খসরু

বর্তমানে দেশ নিয়ন্ত্রণে ‘রাজনীতিবিদদের চেয়ে লুটেরাদের ভূমিকা’ বেশি বলে মনে করেন খসরু।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Nov 2022, 03:23 PM
Updated : 24 Nov 2022, 03:23 PM

দেশের মানুষ ‘সরকারের পতনের আওয়াজ শোনার জন্য প্রস্তুত’ মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগের পায়ের নিচের ‘মাটি সরে যাওয়ায়’ তারা আবোল-তাবোল বকছে।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরে শ্রমিকদলের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের অভিযোগ এনে এই বিএনপি নেতা বলেন, “শ্রমিকদের দুবেলা খাওয়ার সুযোগ নেই। আজকে শ্রমিকদের কর্মসংস্থান নেই। বাসস্থান নেই। শ্রমিকদের বিষয়ে সরকারের বিন্দুমাত্র ইন্টারেস্ট নেই। অথচ শ্রমিকদের কারণে বাংলাদেশ টিকে আছে।

“মাত্র এক শতাংশ লোক লুটপাট করছে। যারা সবাই আওয়ামী লীগের লোক। এই সম্পদ তারা বিদেশে পাচার করেছে। এই সম্পদ যদি দেশে থাকতো তাহলে দেশের মানুষ কিছুটা হলেও সুযোগ পেতো। ১০ লাখ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে।”

খসরু বলেন, “আওয়ামী লীগ সরকারের পায়ের নিচে মাটি নেই। তারা এখন আবোল-তাবোল বকছে। সারাদেশের মানুষ আজকে এই সরকারের পতনের আওয়াজ শোনার জন্য প্রস্তুত হয়েছে।

“তালবাহানা বন্ধ করে অনতিবিলম্বে আগামী নির্বাচনের আগে নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকার ব্যবস্থার দাবি মেনে নিতে হবে। সরকারের সাথে বিএনপির আর কোনো আলোচনা হবে না, আলোচনা হবে নিরপেক্ষ সরকার নিয়ে।”

আগামীতে বিএনপির নেতৃত্বে ‘কল্যাণকর রাষ্ট্র’ গঠনের স্বপ্নের কথা তুলে ধরে খসরু বলেন, “বর্তমানে এক শতাংশ লোক দেশকে নিয়ন্ত্রণ করছে। রাজনীতিতে রাজনীতিবিদদের কোনো ভূমিকা নেই। ভূমিকা আছে লুটেরাদের। কিছু উচ্ছিষ্টভোগী বুদ্ধিজীবী তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে।

“শ্রমজীবী মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হলে এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে উৎখাত করতে হবে। এছাড়া আর কোনো পথ নাই। আগামীতে বিএনপির নেতৃত্বে জাতীয় সরকার কল্যাণকর রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা হবে। ২০৩০ সালের মধ্যে কল্যাণকর রাষ্ট্র করার জন্য যা যা করা দরকার সব পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।”

আওয়ামী লীগ সরকার দেশের জনগণকে জিম্মি করে ফেলেছে মন্তব্য করে বিএনপি নেতা খসরু বলেন, “কিন্তু জনগণের স্রোত রোধ করতে পারেনি। অনেকে প্রশ্ন করে, সরকারের এই মন্ত্রী এই বলছে, সরকার এই বলছে। আপনার প্রতিক্রিয়া কী? আমি বলি, কোনো প্রতিক্রিয়া নেই। কারণ উত্তর দেওয়ার সময় নেই।”

আগামীতে বিএনপির নেতৃত্বে ‘জাতীয় সরকার’ হলে সকলের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও শিক্ষার ব্যবস্থা, শ্রমিকদের জন্য ন্যূনতম মজুরি এবং বেকারদের জন্য বেকার ভাতা দেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেন আমীর খসরু।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রমিক দলের সভাপতি এ এম নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও রেলওয়ে শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক এম আর মনজুরের সঞ্চালনায় সভায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শীমুল বিশ্বাস, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান, চট্টগ্রাম নগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শফিকুর রহমান স্বপন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, কেন্দ্রীয় শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক শ ম জামাল উদ্দিন, বিভাগীয় শ্রমিক দলের সিনিয়র সহসভাপতি ইদ্রিস মিয়া ও সহসভাপতি শামসুল আলম বক্তব্য দেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক