গণঅভ্যুত্থান একবারই হয়েছিল, নব্বইয়ে হয়েছিল আন্দোলন: কাদের

আওয়মী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলছেন, বিএনপির আন্দোলনে ঢেউ এসেছিল; এখন ‘জোয়ার থেকে ভাটায় নেমে গেছে’।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Jan 2023, 11:53 AM
Updated : 25 Jan 2023, 11:53 AM

গণঅভ্যুত্থান দেশে একবারই হয়েছিল মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নব্বইয়ে যেটা হয়েছে সেটা ছিল গণআন্দোলন।

ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান দিবস উপলক্ষে বুধবার ঢাকায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের আয়োজনে এক সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি।

বাঙালির স্বাধিকারের আন্দোলন ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানেই যে বেগবান হয়েছিল, সে কথা মনে করিয়ে দিয়ে কাদের বলেন, “কোনো ব্যক্তি হঠাৎ বাশিতে ফুঁ দিলেন আর স্বাধীনতা চলে এল তা নয়। আচমকা স্বাধীনতা আসেনি।

“কোনো কোনো রাজনৈতিক দল গণঅভ্যুত্থানের কথা বলে, এই দেশে গণঅভ্যুত্থান একবারই হয়েছিল। নব্বইয়ে যেটা হয়েছে সেটা গণআন্দোলন, গণঅভ্যুত্থান না। এরশাদের ভিত দুর্বল ছিল বলে গণআন্দোলনে পদত্যাগ করেছিল।”

আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিলের ‘ট্রামকার্ড- এর ফলাফল’ স্বরণ করিয়ে দিয়ে বিএনপির উদ্দেশে কাদের বলেন, “জলিল ভাইয়ের ট্রামকার্ডের পর ফখরুল ইসলামের লালকার্ড ফলাফল শূন্য... লালকার্ড ভুয়া... ভুয়া।”

তিনি বলেন, "মির্জা ফখরুল লাল কার্ড দেখাতে গিয়ে শূন্য হাতে ফিরল। সরকার পতন, ৫৪ দল, ১০ দফা, তত্ত্বাবধায়ক সরকার সবই ভুয়া। বিএনপির হাঁকডাক, লোটাকম্বল, মশার কয়েল, সাত দিন আগ থেকে সমাবেশের প্রস্তুতি- সবই ব্যর্থ।

“বিএনপি এখন পথহারা পথিকের মত। তাদের আন্দোলনের ঢেউ এসেছিল; এখন জোয়ার থেকে ভাটা নেমে গেছে।”

সোহরায়ার্দীতে না গিয়ে বিএনপি ‘গরুর হাটে’ আন্দোলন করে মন্তব্য করে কাদের বলেন, “বিএনপির আন্দোলন জোয়ার থেকে ভাটার দিকে যাচ্ছে। ভুয়া জোটের মাধ্যমে গঠন করা বিএনপি ভুয়া। তাদের জনগণ বিশ্বাস করে না।"

বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান ‘আবেদন করে বাকশালের সদস্য হয়েছিলেন’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, "বিএনপি বাকশাল নিয়ে কথা বলে; এটা (বাকশাল) জাতীয় দল, এ দলে বঙ্গবন্ধুর কাছে জিয়া দরখাস্ত করে সদস্য হয়েছিল, প্রমাণ আছে।"

ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফির সভাপতিত্বে সভা সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির। এতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, কামরুল ইসলাম ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বক্তব্য দেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক