খাবার হয়ত ভুলভাবে চিবাচ্ছেন

ভালো মতো চিবিয়ে না খেলে দেখা দিতে পারে হজমে গণ্ডগোল।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Nov 2022, 07:48 AM
Updated : 22 Nov 2022, 07:48 AM

খাবার চিবানোতেও ভুল হতে পারে। হয়ত সে কথা কখনও মাথাতেই আসেনি।

ছোটবেলায় খাওয়ার সময় কি বাবা-মা আপনাকে আস্তে খেতে বলতেন? আসল বিষয় না জানলেও বাবা-মা আপনাকে খুবই উপকারী একটা উপদেশ দিতেন।

কারণ খাবার মুখের মধ্যে ভালোভাবে এবং ধীরে চিবিয়ে খাওয়া ও গেলার জন্য খুবই জরুরি। পাশাপাশি হজমের নানান সমস্যা এড়ানো যায় এই অভ্যাস অনুসরণ করলে।

হজমের সঙ্গে চিবানো সম্পর্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ‘হিলিং নিউট্রিশন’য়ের প্রতিষ্ঠাতা জোহানা পি সালাজার রিয়েলসিম্পল ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলেন, “খাবার কোথায় হজম হয় প্রশ্ন করলে পাকস্থলীর কথাই মনে আসবে। তবে হজমক্রিয়া শুধু হয়ে যায় মুখগহ্বর থেকেই। হজমের প্রথম ধাপই হল চিবানো যেখানে খাবার ছোট টুকরা হয় এবং লালাগ্রন্থিগুলো সক্রিয় হয়ে লালারস নিঃসরণ করে। এই লালারসে থাকে ‘অ্যামাইলেজ’ ‘লিপইজ’ ইত্যাদি এনজাইম যা কার্বোহাইড্রেট ও চর্বিকে ভাঙে।

পাশাপাশি লালারস পাকস্থলীতে ‘হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড’য়ের উৎপাদন প্রক্রিয়াকে সক্রিয় করে। ফলে খাবার হজম করার জন্য প্রস্তুত হয় পাকস্থলী।

যুক্তরাষ্ট্রের ‘ফাংশনাল মেডিসিন ফিজিশিয়ান’ জুলি টেইলর বলেন, “খাওয়ার সময় অন্য কাজ করা, তাড়াহুড়ো, মনযোগ না থাকা ইত্যাদি নানান কারণে মানুষ দ্রুত খাওয়া শেষ করে ফেলতে চায়। ফলে খাবার কতটুকু চিবিয়ে খাওয়া হল সেটা নিয়ে মাথা ঘামানো হয় না। এতে খাবার গলায় আটকে যাওয়ার সম্ভাবনা তো থাকেই, সঙ্গে হজমজনিত বিভিন্ন মারাত্মক সমস্যা দেখা দিতে পারে।”

বুক জ্বালাপোড়া: সালাজার বলেন, “এর কষ্ট কেমন, যে ভুগেছে সে জানে। চিবানোর কারণে পাকস্থলীতে ‘হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড’য়ের উৎপাদন শুরু হয়, পাকস্থলী তৈরি হয় খাবারের জন্য। যদি চাবানো হয় কম, তবে স্বাভাবিকভাবেই পাকস্থলীতে খাবার হজম করার জন্য পর্যাপ্ত অ্যাসিড থাকবে না। কম চিবানো খাবার আর পাকস্থলীতে অ্যাসিডের কমতি, এই দুই মিলে পেটে গ্যাস তৈরি হবে যা গলা দিয়ে উঠে এসে বুক জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করবে।” 

হজমের সমস্যা: খাবার কম চিবানো অন্ত্রের জন্যও ক্ষতিকর। খাবার যখন পাকস্থলী থেকে ক্ষুদ্রান্ত্রে যায় তখন অগ্ন্যাশয় বিভিন্ন এনজাইম নিঃসরণ করে আর ‘গলব্লাডার’ দেয় ‘বাইল’। দুটোই খাবারকে আরও ভাঙবে।

কিন্তু খাবার যদি আকারে বড় হয় তবে তাদেরকে ভাঙা সম্ভব হয় না এই দুই এনজাইমের পক্ষে। ফলে অন্ত্রের ব্যাক্টেরিয়া পুরোপুরি হজম না হওয়া খাবার গাঁজানোর পর বংশবিস্তার করতে থাকে।

সবকিছুর পেছনে দায়ে হল খাবার কম চিবানো আর ফলাফল হল পেটে গ্যাস, ফোলাভাব, বদহজম, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি।  

পুষ্টি পাওয়া যায় কম: সালাজার বলেন, খাবার চিবানোর মাধ্যমে ‘কার্বোহাইড্রেইট’, ‘প্রোটিন’ ও চর্বিকে ভেঙে পরিণত করা হয় যথাক্রমে ‘মোনোস্যাকারাইডস’, অ্যামিনো অ্যাসিড, ফ্যাটি অ্যাসিড ইত্যাদির ‘মলিকিউল’য়ে। সেগুলো শোষণ করে ক্ষুদ্রান্ত্র। আর এখানেই খাবার থেকে মূল পুষ্টিগুলো শোষণ করে শরীর।”

এখন খাবার ভালোভাবে চিবিয়ে তাকে ‘কার্বোহাইড্রেইট’, ‘প্রোটিন’ আর চর্বিতে ভাঙা না হলে ক্ষুদ্রান্ত্রের জন্য খাবার থেকে পুষ্টি সংগ্রহ করা জটিল হয়ে পড়বে।

শরীরের তাপমাত্রা বাড়বে: যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইন্টিগ্রেটেড গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি কনসালটেন্টস’য়ের ব্যবস্থাপক এবং ‘গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজিস্ট’ সুপ্রিয়া রাও বলেন, “খাবার ভালোভাবে চিবানো না হলে আপনি প্রয়োজনের তুলনায় দ্রুত খাবার খাচ্ছেন। সেক্ষেত্রে ক্ষুধা ঠিক কখন মিটলো সেটা ঠিক বোঝা যাবে না। ফলে প্রয়োজনের চাইতে বেশি খাওয়া হয়ে যেতে পারে, আর শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যাবে।”

শরীর খারাপ হতে পারে, শরীর প্রচণ্ড অলস হয়ে যেতে পারে। পাশাপাশি বিভিন্ন বিপাকজনিত সমস্যার সম্ভাবনা বাড়ে। যেমন- স্থূলতা, উচ্চমাত্রার কোলেস্টেরল, উচ্চ রক্তচাপ, শর্করার মাত্রা বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি। তীব্র ক্ষেত্রে বাড়ে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ও ক্যান্সারের ঝুঁকিও।  

খাবারের স্বাদ পাওয়া যায় না: দ্রুত খাওয়ার জন্য খাবারের পুরো স্বাদ উপভোগ করা যায় না। পুরো স্বাদ পেতে হলে ধীরে খাবারের প্রতি মনযোগ দিয়ে খাওয়া উচিত।

ডা. রাও বলেন, “খাবারের সুগন্ধ, চেহারা, মুখে তার অনুভূতি, স্বাদ সবকিছুই বোঝার চেষ্টা করা উচিত।

খাবার ভালোভাবে চাবানোর উপায়

খাবার কতক্ষণ চিবালে আসলে ভালোভাবে চিবানো হয়?

সালাজার বলেন, “প্রতিবারে মুখে যে খাবারটুকু নেওয়া হল তা ২০ থেকে ৩০ বার চিবানো উচিত। অন্তত বিশেষজ্ঞরা এভাবেই বলেন। তবে প্রকৃতপক্ষে কী ধরনের খাবার খাচ্ছেন সেটা বিবেচনার বিষয়।”

এখন খাওয়ার সময় কতবার চিবানো হলো সেটা গুনতে থাকা মোটেই যৌক্তিক কাজ নয়। তাই মুখের খাবার যখন একদম নরম ভর্তার মতো হয়ে যাবে বুঝতে হবে পর্যাপ্ত চিবানো হয়েছে।

ওই খাবারটুকু তখন গিলতে একবারেই সমস্যা হওয়া্ উচিত নয়। আর খাবার গলা দিয়ে নামাতে যদি কোনো তরলের প্রয়োজন হয় তবে বুঝতে তা ভালোভাবে চিবানো হয়নি।

আরও পড়ুন:

Also Read: চুইংগাম চাবালেই মুখ কমে না

Also Read: পেট কমাতে যেসব খাদ্যাভ্যাসে নজর দিতে হবে

Also Read: লক্ষণ যখন হজমে গণ্ডগোল

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক