পরিষ্কার করতে যেসব পণ্য কেনার প্রয়োজন নেই

গ্লাস ক্লিনার’ ছাড়াও ঘরে থাকা উপাদান দিয়ে কাচ পরিষ্কার করা যায়।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 March 2024, 01:47 PM
Updated : 27 March 2024, 01:47 PM

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘোরাঘুরি করলে নানান ধরনের পরিষ্কারক পণ্যের বিজ্ঞাপন চোখে পড়ে।

কোনোটা বাথরুম করবে ঝুকঝকে, কোনোট কাঠের আসবাবে নিয়ে আসবে নুতনভাব; আবার কোনোটা হয়ত কাচ করবে স্ফটিকের মতো স্বচ্ছ।

তবে এই ধরনের কিছু পণ্য কেনা যেমন অপচয় তেমনি ক্ষতিকরও হতে পারে।

ফার্নিচার পলিশ

কাঠের আসবার নতুনের মতো ঝকঝকে করতে বাজারে নানান ধরনের পলিশ পাওয়া যায়।

তবে এসব কেনার কোনো প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেন নিউ ইয়র্ক’য়ের হোয়াইট প্লেইন’য়ে অবস্থিত ‘চির্পচির্প হাউজ ক্লিনিং’য়ের রবিন মার্ফি।

রিয়েলসিম্পল ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তিনি বলেন, “এই সময়ে বেশিরভাগ কাঠের আসবাবে সুরক্ষক আবরণ ব্যবহার করা হয়। যা অনেক দিন টেকে।”

তাই সহজেই ধুলা ঝাড়া যায় বা ভেজা কাপড় দিয়ে মুছলেই হয়। বরং বাজার থেকে পলিশ কিনে ব্যবহার করলে উল্টো ফল হতে পারে।

মার্ফি বলেন, “কিছু পলিশে এমন তেল ও মোম-জাতীয় পদার্থ থাকে যা সম্পূর্ণভাবে অপ্রয়োজনীয়। আর কদিন পরেই মলিন হয়ে যায়। এমনকি আঠালো অবস্থা তৈরি করে কাঠের আসবাবের বারোটা বাজায়।”

বাথরুমের বেসিন বাথটাব পরিষ্কারক

সত্যি বলতে অল্প দিন পরপরই বেসিন বাথটাব নোংরা হয়ে যায়। তাই বলে সেসব পরিষ্কারের জন্য দাম দিয়ে কেমিকেল যুক্ত পরিষ্কারক কেনার প্রয়োজন নেই।

এর পরিবর্তে পানিতে বেইকিং সোডা গুলিয়ে ব্যবহার করার পরামর্শ দেন মার্ফি।

ওভেন ক্লিনার

“যদি এক যুগেরও বেশি পুরানো ওভেন হয় তবে হয়তো পরিষ্কারের জন্য বিশেষ কোনো রাসায়নিক ক্লিনার লাগতে পারে”- রসিকতার সুরে বলেন মার্ফি।

এছাড়া আলাদা করে ওভেন পরিষ্কারক কেনার কোনো প্রয়োজন নেই। এক্ষেত্রে তিনি বেইকিং সোডা পানিতে গুলিয়ে ব্যবহারের পরামর্শ দেন।

তার কথায়, “পানির সাথে বেইকিং সোডা গুলিয়ে পেস্ট তৈরি করে ওভেনের যেসব জায়গায় তেল-ময়লা-চর্বি আছে সেখানে মেখে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে। তারপর ঘষা-মাজার ব্রাশ বা স্পঞ্জ ব্যবহার করে পরিষ্কার করা যাবে সহজেই।”

গ্লাস ক্লিনার

স্বচ্ছ জানালার কাচ বা আয়না দেখতে বেশ লাগে। আর এসব পরিষ্কার করতে বাজারে নানান ধরনের গ্লাস ক্লিনার পাওয়া যায়।

মার্ফি বলেন, “এটা ঠিক যে, এসব ক্লিনার ভালোভাবেই পরিষ্কার করতে পারে। তবে প্রাকৃতিক উপাদান থাকতে টাকা খরচ করে এসব কর্কশ রাসায়নিক ব্যবহারের কোনো মানে হয় না।”

যে কোনো কাচ পরিষ্কার করতে ভিনেগার মিশ্রিত পানি ব্যবহার করার পরামর্শ দেন তিনি।

তার কথায়, “এই মিশ্রণ কাচ ঝকঝকে করতে চমৎকার কাজ করবে।”

ডিসপোজেবল ওয়াইপ্স

‘ক্লিনিং ওয়াইপ্স’ ব্যবহারের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা রয়েছে। যেমন- ভ্রমণে কাজে লাগে।

তবে বাসার জন্য কিনে আনা মানে, অপচয় ছাড়া কিছু নয়। এসবের পরিবর্তে সাধারণ ক্লিনিং স্প্রে ও মাইক্রোফাইবার বা সূক্ষ্ম তন্তুর কাপড় ব্যবহার করাই যথেষ্ট।

আরও পড়ুন

Also Read: যেভাবে আয়না পরিষ্কার করতে হয়

Also Read: যেভাবে ইয়ারবাডস পরিষ্কার করতে হয়

Also Read: ম্যাট্রেস যেভাবে পরিষ্কার করতে হয়

Also Read: ঘর পরিষ্কারের সাপ্তাহিক অভ্যাস