দক্ষিণাঞ্চলে আরও ইকনোমিক জোন করার প্রস্তাব ডিসি সম্মেলনে

অনেক সময় ভৌত অবকাঠামো হয়, কিন্তু জনবল নিয়োগ হয় না; অবকাঠামোগুলো ব্যবহার করা হয় না, নষ্ট হয়ে যায়। সেসব কথাও ডিসিরা বলেছেন।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Jan 2023, 12:58 PM
Updated : 24 Jan 2023, 12:58 PM

পদ্মাসেতু হয়ে যাওয়ায় যোগাযোগ অবকাঠামোর সুবিধা কাজে লাগাতে বরিশাল অঞ্চলে কয়েকটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল নির্মাণ করা যায় কিনা, সেই প্রস্তাব এসেছে ডিসি সম্মেলনে।

মঙ্গলবার ডিসি সম্মেলনের প্রথম দিন অর্থমন্ত্রণালয় ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে জেলা প্রশাসকদের বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা মসিউর রহমান সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, পদ্মাসেতু হওয়ার পরে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে নতুন সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। বরিশাল শহরে অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের আঞ্চলিক অফিস করা যায় কিনা সম্মেলনে সেই প্রস্তাব এসেছে। বরিশাল অঞ্চলে আর কোনো অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব কিনা সেই প্রস্তাবও ছিল।

“তাদের প্রস্তাব পরীক্ষা করে দেখা হবে। যদি দেখা যায় যে, সেখানে এগুলো করার প্রয়োজন আছে, তাহলে সেভাবে উদ্যোগ নেওয়া হবে।”

নওগাঁর সাপাহারে একটি শুল্ক স্টেশন করার প্রস্তাব এলেও বৈঠকে তা নকচ করা হয়েছে বলে জানান মসিউর।

“২০২২ সালে একটা প্রস্তাব ছিল নওগাঁর সাপাহারে একটা শুল্ক স্টেশন করার। অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে উত্তর দেওয়া হয়েছে যে, নওগাঁর কাছাকাছি দুইটা শুল্ক সে্‌টশন আছে। তাই এখানে নতুন করে আরেকটি শুল্ক স্টেশন করা যুক্তিসঙ্গত নয়।”

শুল্ক স্টেশনে কী ধরনের পণ্য আমদানি-রপ্তানি করা যায়, এমন কথাও উঠেছে জানিয়ে মসিউর বলেন, “ভারতের সঙ্গে যা কিছু আমদানি রপ্তানি চলে, তার সবই শুল্কস্টেশনগুলো হয়ে করা যায়। কিন্তু এখানে কথা হচ্ছে সবগুলো স্টেশনের সক্ষমতা এক রকম নয়। সেজন্য আমরা কখনও কখনও আইটেম রেস্ট্রিক্ট করি।”

দেশের বিভিন্ন স্থানে কম প্রয়োজনীয় অনেক অবকাঠানো নির্মাণ হয়ে যাচ্ছে বলে ডিসি সম্মেলনে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন জেলা প্রশাসকরা। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হবে বলে ডিসিদের জানান পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বিষয়ে ডিসি সম্মেলনে কথা এসেছে যে, অনেক সময় ভৌত অবকাঠামো হয়, কিন্তু জনবল নিয়োগ হয় না। ফলে অবকাঠামোগুলো ব্যবহার করা হয় না, নষ্ট হয়ে যায়। কাছাকাছি কোনো জনবসতি নেই; কিন্তু একটি ব্রিজ হয়তো করে রাখা হয়েছে। সেই ব্রিজ ব্যবহার ছাড়াই নষ্ট হয়ে যায়।

মসিউর রহমান বলেন, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু মন্ত্রী অসুস্থতার কারণে আসতে পারেননি। বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, এই অসঙ্গতিগুলো তারাও লক্ষ্য করেছেন এবং দূর করার জন্য সচেতন আছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক