টেস্টের প্রস্তুতির জন্য পাকিস্তানে ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ!

তিন দফায় পাকিস্তানে গিয়ে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে রাজী হওয়ার সিদ্ধান্ত একটি চমক। আরেকটি বিস্ময়, আইসিসি ভবিষ্যৎ সূচির বাইরে একটি ওয়ানডে যোগ হওয়া। তবে সবকিছুকে ছাপিয়ে বড় চমক হয়ে এলো ওয়ানডে যোগ করার ব্যাখ্যা। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলছেন, টেস্ট ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য ওয়ানডে খেলতে চেয়েছে বাংলাদেশ!

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Jan 2020, 12:06 PM
Updated : 15 Jan 2020, 06:40 PM

সূচি অনুযায়ী, ২৪, ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি লাহোরে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। ওই সিরিজ খেলে দেশে ফিরে ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে টেস্ট খেলতে দল আবার যাবে পাকিস্তানে। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ হবে রাওয়ালপিণ্ডিতে। তৃতীয় দফার সফর এপ্রিলে। ৩ এপ্রিল করাচিতে একটি ওয়ানডে খেলবে দুই দল। তার পর একই শহরে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আরেকটি টেস্ট ৫ এপ্রিল থেকে।

দুবাই থেকে বুধবার দেশে ফিরে বিমানবন্দরে নাজমুল হাসান জানালেন, দ্বিতীয় টেস্টের আগে প্রস্তুতির জন্যই ওয়ানডে যোগ করা হয়েছে। পাশাপাশি, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের আর্থিক ক্ষতিও পুষিয়ে দিতে চেয়েছে বিসিবি।

“পাকিস্তানের বেশ ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে তিন দফায় আমরা যাচ্ছি। আমাদের মনে হয়েছে প্র্যাকটিস ম্যাচ একটা দরকার। ওরা বলছিল একটা টি-টোয়েন্টি করা যায় কিনা। টি-টোয়েন্টি হলে ওদের আয় কিছুটা পোষাবে। কারণ তিনবারে একটা সিরিজ আয়োজন করা, ওদের খরচ বেড়ে যাবে। সময়ও নেই যে এসবকে তারা নতুন করে মার্কেট করতে পারবে।”

“আমাদের কাছে মনে হয়েছে, টি-টোয়েন্টির চেয়ে ওয়ানডে হলে প্র্যাকটিস একটু বেশি হবে। বেশি ওভার খেলতে পারবে। সেজন্য আপাতত ঠিক করেছি যে ওয়ানডে খেলব।”

দ্বিতীয় টেস্টের আগে প্রস্তুতি ম্যাচের কথা ভাবা হলেও প্রথম টেস্টের আগে তেমন কিছু রাখা হয়নি। আর টেস্ট ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য একদিনের ম্যাচ খেলা, সেটিরও কোনো নজির আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ইতিহাসে সম্ভবত আর নেই।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক