সুপ্রিম কোর্টে দুই আইনজীবীর মামলা পরিচালনায় নিষেধাজ্ঞা বাড়ল

এ বিষয়ে আদেশের জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখ রাখা হয়েছে।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Feb 2024, 11:29 AM
Updated : 13 Feb 2024, 11:29 AM

প্রধান বিচারপতিকে দুই আইনজীবীর দেওয়া চিঠিতে ‘অবমাননাকর ভাষা’ ব্যবহারের অভিযোগ নিয়ে পরবর্তী আদেশের জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখ রেখেছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

ওই সময় পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির অ্যাডহক কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ মহসিন রশিদ ও সদস্য সচিব শাহ আহমেদ বাদল সুপ্রিম কোর্টের দুই বিভাগের কোনোটিতেই মামলা পরিচালনা করতে পারবেন না বলে আদেশ দিয়েছে আদালত।

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে ছয় বিচারপতির আপিল বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেয়।

আদালতে বিএনপিপন্থি দুই আইনজীবীর পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ মোহাম্মদ মোরশেদ।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন বর্জনসহ কয়েকটি দাবিতে ১ থেকে ৭ জানুয়ারি আদালত বর্জন কর্মসূচি পালন করেন বিএনপিসহ সরকারবিরোধী আইনজীবীরা। এই কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে ১ জানুয়ারি প্রধান বিচারপতিকে চিঠি দেন অ্যাডভোকেট মহসীন ও বাদল।

ওই চিঠি দিয়ে আদালতের ‘মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করার’ ব্যাখ্যা দিতে গত ৩ জানুয়ারি স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আপিল বিভাগ এ দুই আইনজীবীকে তলব করে।

১১ জানুয়ারি তাদের ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য দিন ধার্য ছিল। সেদিন তারা সময়ের আবেদন করলে ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য আরো চার সপ্তাহ সময় দেয় আদালত। আদেশে বলা হয়, ওই সময়ের মধ্যে তারা সুপ্রিম কোর্টের কোনো বিভাগে মামলা পরিচালনা করতে পারবেন না।   

দুই আইনজীবী পরে ব্যাখ্যা দিলেও তাতে সন্তুষ্ট হয়নি আদালত। এরপর তারা নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনার জন্য সময়ের আবেদন করায় পরবর্তী আদেশের জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখ রেখেছে আপিল বিভাগ। তাদেরে মামলা পরিচালনায় নিষেধাজ্ঞার মেয়াদও ওই সময় পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

পুরনো খবর

Also Read: সুপ্রিম কোর্টে দুই আইনজীবীর ৪ সপ্তাহ মামলা পরিচালনায় নিষেধাজ্ঞা