ফুটপাত ভাড়া: জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নির্দেশ

স্থায়ী-অস্থায়ী দোকান বা স্থাপনাও যাতে না বসে সেজন্যও কার্যকর পদক্ষেপ দেখতে চায় হাই কোর্ট।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 03:57 PM
Updated : 21 Nov 2022, 03:57 PM

ঢাকার ফুটপাত দখল করে কিছু অংশ ভাড়া বা বিক্রির সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

সাত দিনের মধ্যে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে সোমবার ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক), যুগ্ম পুলিশ কমিশনার ও জেলা প্রশাসকসহ ঢাকার ১৫টি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন এবং ঢাকার ফুটপাতে যাতে স্থায়ী-অস্থায়ী দোকান বা স্থাপনা কেউ বসাতে না পারে, সে ব্যপারেও কার্যকরি পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে জনস্বার্থে করা এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানির পর সোমবার রুলসহ এ আদেশ দেয় বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল আকন্দের হাই কোর্ট বেঞ্চ।

রাজধানী ফুটপাতের পজেশন (স্থান) বিক্রি ও ভাড়া বন্ধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না এবং তা বন্ধে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে। চার সপ্তাহের মধ্যে বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

আইনজীবী মনজিল মোরসেদ জানান, এসব বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশের পাশাপাশি জড়িতদের চিহ্নিত ও তালিকা করতে উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাদের দিয়ে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

“ঢাকার দুই মেয়র, স্বরাষ্ট্র সচিব, স্থানীয় সরকার সচিব, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিবকে এ নির্দেশ দিয়ে আদালত বলে দিয়েছেন, কমিটিতে দুই সিটি করপোরেশন, পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি), স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) থেকে একজন করে উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাকে দিয়ে এ কমিটি করতে।”

রাজধানীর ফুটপাতের পজেশন বিক্রি ও ভাড়া নৈরাজ্যের শিকার হচ্ছে সাধারণ মানুষ। ফুটপাত দখলে থাকায় সাধারণ মানুষ রাস্তা দিয়ে হাঁটতে বাধ্য হচ্ছে। এতে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন পদচারীরা।

তাছাড়া ফুটপাত দখলমুক্ত রাখার দায়িত্ব যাদের তারা সে দায়িত্ব পালন করছে না। যে কারণে জনস্বার্থে রিট আবেদনটি করা হয় বলে জানান আইনজীবী মনজিল মোরসেদ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক