হাই কোর্টে দুদকের বাছিরের জামিন

এর আগে একবার তাকে জামিন দেওয়া হলেও নথিপত্রে গড়বড় থাকায় তা প্রত্যাহার করা হয়।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Nov 2022, 01:24 PM
Updated : 17 Nov 2022, 01:24 PM

ঘুষ লেনদেনের মামলায় আট বছরের দণ্ড পাওয়া দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) বরখাস্ত পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে জামিন দিয়েছে হাই কোর্ট।

তার জামিন আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি মো. রইস উদ্দিনের একক বেঞ্চ বৃহস্পতিবার ছয় মাসের জামিন মঞ্জুর করে।

আদালতে এনামুল বাছিরের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ফারুক আলমগীর চৌধুরী, দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

পরে ফারুক আলমগীর চৌধুরী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এ মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে খন্দকার এনামুল বাছির আপিলের আবেদন করেছেন। সে আবেদনের বিষয়ে শুনানির জন্য উভয় পক্ষকে প্রস্তুতি নিতে বলে আদালত তাকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন।”

এর আগে গত ২৩ অগাস্ট এ মামলায় এনামুল বাছিরকে আপিল নিষ্পত্তি হওয়া পর্যন্ত জামিন দিয়েছিল বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের একক হাই কোর্ট বেঞ্চ। কিন্তু মূল আপিল আবেদনের সাথে জামিন আবেদন না থাকায় পরদিন ওই জামিন আদেশ প্রত্যাহার করে আদালত।

গত ১৩ এপ্রিল এনামুল বাছিরের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করে হাই কোর্ট। একইসাথে মামলায় তার বিরুদ্ধে ৮০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড স্থগিত করে রায় সংক্রান্ত বিচারিক আদালতের যাবতীয় নথি তলব করা হয়।

এ মামলায় তিন বছরের সাজাপ্রাপ্ত পুলিশের বরখাস্ত উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে গত এপ্রিলে জামিন দিয়েছিল হাই কোর্ট বেঞ্চ।

একটি মামলা থেকে বাঁচার আশায় দুদকের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েছিলেন পুলিশ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান। তাদের আসামি করে ২০১৯ সালের ১৬ জুলাই দুদকের পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্লাহ বাদী হয়ে মামলা করেন।

এর এক সপ্তাহের মধ্যে ২২ জুলাই এনামুল বাছিরকে গ্রেপ্তার করে দুদক। এরপর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন। বাছিরকে গ্রেপ্তারের আগের দিন একই মামলায় পুলিশের সাবেক কর্মকর্তা মিজানুরকে গ্রেপ্তার দেখায় দুদক। তাদের দুজনকেই চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়।

এ মামলার রায়ে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম দুইজনকে সাজা দেন।

রায়ে মিজানকে দণ্ডবিধির ১৬৫ ধারায় ৩ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। আর এনামুল বাছিরকে দণ্ডবিধির ১৬১ ধারায় ৩ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি মুদ্রা পাচার আইনের ৪ ধারায় ৫ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড, ৮০ লাখ জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সাজা দেওয়া হয়।

আরও খবর

Also Read: হাই কোর্টে ফের জামিন আবেদন দুদকের বাছিরের

Also Read: এনামুল বাছিরের জামিন একদিন পর প্রত্যাহার

Also Read: দণ্ডিত এনামুল বাছির জামিন পেলেন হাই কোর্টে

Also Read: ঘুষ লেনদেনের মামলায় ডিআইজি মিজানের জামিন

Also Read: ডিআইজি মিজানের শাস্তি চেয়ে দুদকের আপিল গ্রহণ, নথি তলব

Also Read: অর্থ পাচার: ডিআইজি মিজানের শাস্তি চেয়ে দুদকের আপিল

Also Read: ঘুষ লেনদেন: ডিআইজি মিজানের ৩ বছর সাজা, দুদকের বাছিরের ৮ বছর

Also Read: ডিআইজি মিজানের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক