ভাইয়ের সাক্ষ্যে শিমু হত্যার বিচার শুরু

বাদীর অবশিষ্ট জেরা এবং পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী ২৬ জানুয়ারি দিন রেখেছেন বিচারক।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Jan 2023, 12:55 PM
Updated : 23 Jan 2023, 12:55 PM

চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুর ভাই হারুন অর রশীদের সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্য দিয়ে আলোচিত এ মামলার বিচার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

মামলার বাদী হারুন অর রশীদ সোমবার ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের আদালতে নিজের জবানবন্দি উপস্থাপন করেন। তার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামিপক্ষের আইনজীবী তাকে আংশিক জেরা করেন।

পরে বিচারক অবশিষ্ট জেরা এবং পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী ২৬ জানুয়ারি দিন ঠিক করে দেন বলে বাদীপক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলাম সুমন জানান।

মামলার দুই আসামি শিমুর স্বামী সাখাওয়াত আলীম নোবেল এবং তার বন্ধু এস এম ফরহাদকে এদিন কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে গত বছরের ২৯ নভেম্বর এই দুই আসামির বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছিলেন ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কেরাণীগঞ্জ থানার পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম গতবছর ২৯ অগাস্ট আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

স্বামী ও দুই সন্তানকে নিয়ে রাজধানীর গ্রিনরোড এলাকার বাসায় থাকতেন ৪০ বছর বয়সী শিমু। গতবছর ১৬ জানুয়ারি বাসা থেকে বেরিয়ে আর ফেরেননি তিনি। তার সন্ধানে পরদিন কলাবাগান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার স্বামী নোবেল।

সেদিন দুপুরে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে কেরানীগঞ্জের হজরতপুর ব্রিজের কাছে আলিয়াপুর এলাকায় রাস্তার পাশে বস্তা থেকে এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। রাতে ঢাকার মিটফোর্ড হাসপাতালের মর্গে গিয়ে ওই লাশ শিমুর বলে শনাক্ত করেন তার বড় ভাই শহীদুল ইসলাম খোকন।

মামলা হওয়ার পর ওই রাতেই নোবেল ও তার বাল্যবন্ধু ফরহাদকে আটক করে কেরাণীগঞ্জ মডেল থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন তাদের আদালতের মাধ্যমে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।

ঢাকার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার ওই বছর ১৮ জানুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “পারিবারিক বিষয়াদি ও দাম্পত্য কলহের কারণে শিমুকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যা করেছে শিমুর স্বামী নোবেল ও লাশটি গুম করতে সহায়তা করেছে নোবেলের বন্ধু ফরহাদ।”

কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘বর্তমান’ সিনেমা দিয়ে ১৯৯৮ সালে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে শিমুর। পরের বছরগুলোতে দেলোয়ার জাহান ঝন্টু, চাষি নজরুল ইসলাম, শরিফ উদ্দিন খান দিপুসহ আরও বেশ কিছু পরিচালকের প্রায় ২৫ সিনেমায় পার্শ্বচরিত্রে দেখা যায় তাকে। শাকিব খান, অমিত হাসানসহ কয়েকজন তারকার সঙ্গেও কাজ করেছেন।

শিমু বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সহযোগী সদস্য ছিলেন। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি কয়েকটি টিভি নাটকে অভিনয় এবং প্রযোজনাও করেছেন।

পুরনো খবর

অভিনেত্রী শিমু হত্যা: স্বামীসহ দুজনের বিচার শুরু

অভিনেত্রী শিমু হত্যা: স্বামীসহ দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ

শিমু হত্যার পেছনে দাম্পত্য কলহ, স্বামীই ঘাতক: পুলিশ

অভিনেত্রী শিমু হত্যা: তদন্ত প্রতিবেদন দিতে সময় পেল পুলিশ

শিমু হত্যায় ‘দাম্পত্য কলহের’ কথাই এসেছে জবানবন্দিতে

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক