রামনাথ বিশ্বাসের স্মৃতি রক্ষার দায়িত্ব সরকারের: শত নাগরিকের বিবৃতি

রামনাথ বিশ্বাসের বাড়িটি পুনরুদ্ধারের পর সেখানে ভ্রমণবিষয়ক বইয়ের একটি বিশেষায়িত পাঠাগার এবং বাইসাইকেল মিউজিয়াম গড়ে তোলার দাবি জানানো হয়েছে বিবৃতিতে।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Sept 2022, 08:29 PM
Updated : 24 Sept 2022, 08:29 PM

রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণের দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন সংস্কৃতিকর্মী, সাংবাদিক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ১০০ জন নাগরিক।

শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো ওই বিবৃতিতে রামনাথ বিশ্বাসের বাড়িটি পুনরুদ্ধারের পর সেখানে ভ্রমণবিষয়ক বইয়ের একটি বিশেষায়িত পাঠাগার এবং বাইসাইকেল মিউজিয়াম গড়ে তোলার দাবি জানিয়ে এ বিষয়ে সরকারকে উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, “প্রায় শতবর্ষ আগে হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার বিদ্যাভূষণ পাড়ার রামনাথ বিশ্বাস বাইসাইকেল নিয়ে বেরিয়েছিলেন ভূ-পর্যটনে। দেশে দেশে ভ্রমণ করেই ক্ষ্যান্ত হননি তিনি, বাঙালির ঘরকুনো অপবাদ ঘুচানো এই মানুষটি লিখেছেন ভ্রমণবিষয়ক গোটা চল্লিশেক বই। কলকাতায় তার নামে রয়েছে একটি সড়ক, কিন্তু নিজভূমে বেদখল হয়ে গেছে তার স্মৃতিবিজড়িত বাড়িটিও।"

উদার-অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী রামনাথের জন্ম ১৮৯৪ সালে। ভ্রমণপিপাসু এই মানুষটি থিতু হতে চেয়েছিলেন নিজ গ্রাম বানিচংয়ে। কিন্তু ১৯৪৭ সালের দেশ ভাগের পর কলকাতায় চলে যেতে বাধ্য হন। সেখানেই ১৯৫৫ সালে তার মৃত্যু হয়।


বিবৃতিতে বলা হয়, “আমরা জানতে পেয়েছি, রামনাথের বাড়িটির দখলদার আবদুল ওয়াহেদ মিয়া আল-বদর পরিবারের সদস্য। নিজে এক সময় জামায়াত-বিএনপি করে যোগ দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগে। যোগ দিয়ে রীতিমতো ওয়ার্ড কমিটির সভাপতির পদও বাগিয়ে নিয়েছিলেন। তারই প্রেক্ষাপটে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে রামনাথের বাড়ি দেখতে যাওয়া পর্যটক, বাইসাইকেল রাইডার ও সাংবাদিকের ওপর বিভিন্ন সময় হামলা চালিয়েছেন।

“সর্বশেষ গত ১১ সেপ্টেম্বর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের স্পেশাল অ্যাসাইনমেন্ট এডিটর রাজীব নূরসহ চার সাংবাদিক নিগৃহীত হয়েছেন দখলদার ওয়াহেদ ও তার পুত্রদের হাতে।"

Also Read: রামনাথের পৃথিবী পুনরুদ্ধার

ওই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে শত নাগরিকের বিবৃতিতে বলা হয়, “এই ঘটনার পর ওয়াহেদকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে আওয়ামী লীগ। আমরা মনে করি শুধু দল থেকে বহিষ্কার করা বড় কোনো সমাধান নয়। রামনাথ বিশ্বাসের বসতবাড়িটি দখলদারের হাত থেকে পুনরুদ্ধার করতে হবে।

“আমাদের জানা মতে, ওই বাড়ির প্রায় পাঁচ একর জমির সবটুকুই এখন সরকারি খাস খতিয়ানে। প্রকৃতপক্ষে সরকারই এ জমির মালিক। তাই বিস্মৃতপ্রায় ভূপর্যটক রামনাথ বিশ্বাসের স্মৃতি রক্ষার দায়িত্বও সরকারের।”

বাংলাদেশের ভ্রমণ লেখক ও বাইসাইকেল রাইডাররা ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব পর্যটন দিবসে হবিগঞ্জ থেকে সাইকেল চালিয়ে বিদ্যাভূষণ পাড়ায় যাচ্ছেন বাইসাইকেলে বিশ্ব ভ্রমণকারী রামনাথ বিশ্বাসকে স্মরণ করতে। সেই লক্ষ্যে লেখক, সাংবাদিক ও সংস্কৃতিকর্মীরা মিলে গঠন করেছেন ভূপর্যটক রামনাথ বিশ্বাসের বসতভিটা পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণ কমিটি।

ওই কমিটি রামনাথের বাড়িটি পুনরুদ্ধারের পর সেখানে ভ্রমণবিষয়ক বইয়ের একটি বিশেষায়িত পাঠাগার এবং বাইসাইকেল মিউজিয়াম গড়ে তোলার দাবি জানিয়েছে। সেই সাথে প্রতি বছর বিশ্ব পর্যটন দিবসে রামনাথ বিশ্বাসকে নিয়ে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনকে বিশেষ অনুষ্ঠান আয়োজনের অনুরোধ জানিয়েছে।

এসব দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, “আমরা চাই, শুধু রামনাথ বিশ্বাস নয়, সরকার উদ্যোগী হোক আমাদের ইতিহাস-ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখে যাওয়া সবার স্মৃতি সংরক্ষণে।”

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করা ১০০ নাগরিকের মধ্যে সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, কথাসাহিত্যিক শিক্ষাবিদ সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দীন ইউসুফ, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির, গবেষক ও মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক, একুশে পদকপ্রাপ্ত নাট্যজন আহমেদ ইকবাল হায়দার, স্বাধীনতা পুরস্কার ও একুশে পদকজয়ী অভিনয়শিল্পী ফেরদৌসী মজুমদার, জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি মুহাম্মদ সামাদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, সাধারণ সম্পাদক আহকাম উল্লাহ রয়েছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক