সোহেল চৌধুরী হত্যা: বিচার শেষ না করায় বিচারককে শোকজ

চলতি বছরের ৬ ফেব্রুয়ারি সোহেল চৌধুরী হত্যা মামলার বিচার পরবর্তী ৬ মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Oct 2023, 10:23 AM
Updated : 29 Oct 2023, 10:23 AM

আদালতের নির্দশনার পরও বিচার কাজ শেষ না হওয়ায় ২৫ বছর আগের চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী হত্যা মামলার বিচারককে কারণ দর্শাতে বলেছে আপিল বিভাগ।  

ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারককে আগামী ১২ নভেম্বরের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিসের জবাব দিতে বলা হয়েছে।


রোববার প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেয়।

আদালতে আসামির পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি সোহেল চৌধুরী হত্যা মামলার বিচার পরবর্তী ৬ মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছিল আপিল বিভাগ।

একইসঙ্গে এই সময় পর্যন্ত আসামি আশিষ রায় চৌধুরীর জামিন স্থগিত করে। 

এর আগে এই হত্যা মামলায় আশিষ রায় চৌধুরী হাই কোর্ট থেকে জামিন নিয়েছিলেন। পরে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করলে চেম্বার আদালত তা স্থগিত করে আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠায়।

১৯৯৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর বনানীর ১৭ নম্বর রোডের আবেদীন টাওয়ারে ট্রাম্পস ক্লাবের নিচে সোহেলকে গুলি করে হত্যা করা হয়। ঘটনার দিনই তার ভাই তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী গুলশান থানায় হত্যা মামলা করেন।

১৯৯৯ সালের ৩০ জুলাই ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার আবুল কাশেম ব্যাপারী ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মদ ভাইসহ নয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

ওই মামলায় ২০০১ সালের ৩০ অক্টোবর ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন হয়। এরপর মামলাটি দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য ২০০৩ সালে ঢাকার ২ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হয়।

এরপর দীর্ঘদিন মামলাটির নথিপত্র খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে একটি রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি সবার নজরে আসে। তারপর বিচারিক আদালতে পুনরায় বিচার শুরু হয়।

আসামিদের মধ্যে তারিক সাঈদ মামুনের পক্ষে হাই কোর্টে মামলাটি বাতিল চেয়ে আবেদন করা হলে আদালত একটি রুল দেয়; সেই সঙ্গে বিচারিক আদালতে মামলার কার্যক্রমে স্থগিতাদেশ আসে।

মামলার বর্তমান অবস্থা 

গত বুধবার এ হত্যা মামলায় সোহেল চৌধুরীর বন্ধু কুমিল্লা-৮ আসনের সংসদ সদস্য নাছিমুল আলম চৌধুরীসহ তিনজন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক এম আলী আহমেদের আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন।

সাক্ষ্য দেওয়া অন্য দুজন হলেন-ব্যবসায়ী আহমেদ সাঈদ এবং ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক বেলায়েত হোসেন খান।

আগামী ২৬ নভেম্বর পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ঠিক করেছে এ আদালত। 

মামলাটিতে ইতোমধ্যে নয়জনের সাক্ষ্য শেষ হয়েছে বলে ওই মামলার আইনজীবী সদিয়া আফরিন শিল্পী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন

চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী হত্যা: সাক্ষ্য দিলেন এমপি নাছিমুলসহ তিনজন

চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী হত্যা: কেস ডকেট উপস্থাপনে শেষ সুযোগ পেলেন ফরিদ

চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী হত্যা: গ্রেপ্তার দেখানো হল আশীষ চৌধুরীকে

সোহেল চৌধুরী খুনের মামলার ‘কেস ডকেট’ উধাও, আলামতও গায়েব

সোহেল চৌধুরী-দিতির সন্তানরা কে কোথায়

চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী খুনের আসামি আশীষ রায় গ্রেপ্তার