সাহিনুদ্দিন হত্যা: তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলে আরও সময় পেল পিবিআই

তদন্ত প্রতিবেদন জমার দিন থাকলেও পিবিআই তা দিতে পারেনি। দ্বিতীয় দফায় সময় বাড়িয়ে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর নতুন তারিখ দিয়েছে আদালত।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 July 2022, 04:40 PM
Updated : 28 July 2022, 04:40 PM

ঢাকার পল্লবীতে ব্যবসায়ী সাহিনুদ্দিন হত্যা মামলায় নতুন করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে দ্বিতীয় দফায় এবার এক মাসের বেশি সময় পেল পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

বৃহস্পতিবার তদন্ত প্রতিবেদন জমার দিন থাকলেও পিবিআই তা দিতে পারেনি। তাই আগামী ৫ সেপ্টেম্বর নতুন তারিখ রেখেছেন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মোহাম্মদ নূরুল হুদা চৌধুরী।

এর আগে গত ১২ মে পিবিআইয়ের দেওয়া প্রতিবেদনে মামলার বাদী সাহিনুদ্দিনের মা আকলিমা বেগমের নারাজি আবেদন গ্রহণ করেন। একই সঙ্গে মামলাটি পুনরায় তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

Also Read: সাহিনুদ্দিন হত্যার অভিযোগপত্রে আউয়ালসহ ১৫ জন আসামি

Also Read: কাল হয়েছে জমি

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সাহিনুদ্দিন হত্যা মামলায় লক্ষ্মীপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ আউয়ালসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে আভিযোগপত্র দেন তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক সৈয়দ ইফতেখার হোসেন।

অভিযোগপত্রে বাকি আসামিরা হলেন- সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সুমন বেপারী, মোহাম্মদ তাহের, মো. গোলাম কিবরিয়া খান, মোহাম্মদ মুরাদ, টিটু শেখ ওরফে টিটু, মোহাম্মদ রকিতালুকদার, নূর মোহাম্মদ হাসান, মোহাম্মদ শরীফ, ইকবাল হোসেন, মো. তরিকুল ইসলাম ইমন, তুহিন মিয়া, মো. হারুনুর রশিদ, মো. শফিকুল ইসলাম শফিক ও ইব্রাহিম সুমন।

আসামিদের মধ্যে সুমন ও শফিকুল ছাড়া বাকি ১৩ জন কারাগারে আছেন। এদের মধ্যে ৯ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়া মামলার দুই আসামি কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন।

২০২১ সালের ১৬ মে বিকালে মিরপুর ১২ নম্বর সেকশনের ৩১ নম্বর সড়কে সাহিনুদ্দিনকে তার ছেলের সামনে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ওই রাতেই তার মা আকলিমা বেগম ২০ জনকে আসামি করে পল্লবী থানায় মামলা করেন।

ঢাকারপল্লবীর উত্তর কালশীর সিরামিক এলাকার বাসিন্দা আকলিমার দুই ছেলের মধ্যে সাহিনুদ্দিন ছোট। বাউনিয়া মৌজার উত্তর কালশীর বুড়িরটেকের আলীনগর আবাসিক এলাকায় ১০ একর জমি রেখে গেছেন আকলিমার প্রয়াত স্বামী। সেই জমি দখল করতেই তার সন্তানকে খুন করা হয়েছে বলে আকলিমার অভিযোগ।

তিনি বলেছেন, ওই জমি দখলের চেষ্টা করে আসছিলেন হাভেলি প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের মালিক, লক্ষ্মীপুরের সাবেক এমপি এম এ আউয়াল। তিনি ইসলামী গণতান্ত্রিক পার্টির চেয়ারম্যান ও তরীকত ফেডারেশনের সাবেক মহাসচিব।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক