ভোটের আগে একযোগে ৩৩৮ ওসি বদলি

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পাঠানো প্রস্তাবে এর আগে ৪৭ জন ইউএনওর বদলির অনুমোদন করেছিল ইসি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Dec 2023, 04:29 PM
Updated : 7 Dec 2023, 04:29 PM

নির্বাচন কমিশনের অনাপত্তি এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সম্মতিতে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে প্রথম ধাপে দেশের ৩৩৮ থানার ওসিকে বদলি করেছে পুলিশ সদর দপ্তর।

বৃহস্পতিবার রাতে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। তার আগে সকালে ৩৩৮ থানার ওসিকে বদলির বিষয়ে সম্মতি দেয় নির্বাচন কমিশন।

ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম বিকালে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, “বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই ওসিদের বর্তমান নির্বাচনি এলাকার বাইরে বদলি করা হয়েছে। কোথাও একই জেলায়, কোথাও জেলার বাইরে বদলি হয়েছে।”

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে গত ৩০ নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ওসিদের বদলি করার জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দেয় নির্বাচন কমিশন। কাদের বদলি করা হবে সেই প্রস্তাব কমিশনে পাঠাতে বলা হয়।

সে অনুযায়ী ছয় মাসের বেশি সময় ধরে একই কর্মস্থলে থাকা ওসিদের তালিকা কমিশনে পাঠায় জননিরাপত্তা বিভাগ। আর এক বছর দায়িত্বে থাকা শতাধিক ইউএনওর বদলির প্রস্তাব দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পাঠানো প্রস্তাবে এর আগে ৪৭ জন ইউএনওর বদলির অনুমোদন করে ইসি। পরে বুধবার ১১০ ইউএনও এবং ৩৩৮ জন ওসিকে বদলির প্রস্তাব আসে, যাতে বৃহস্পতিবার অনুমোদন দেয় কমিশন।

নির্বাচন কমিশন এ পর্যন্ত ২০৫ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বদলির প্রস্তাব অনুমোদন করেছে জানিয়ে ইসি সচিব বলেন, “নির্বাচনি এলাকার অবস্থানের ভিত্তিতে ইউএনওদের বদলি হচ্ছে। কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ পেলে তদন্ত করে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

এ পর্যন্ত আপিল ৩৩৮টি

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পর এ পর্যন্ত ৩৩৮ জন নির্বাচন কমিশনে আপিল আবেদন করেছেন। শনিবার আপিল দায়েরের সময় শেষ হবে। এরপর নির্বাচন কমিশন বসে আপিল শুনানি করে সিদ্ধান্ত দেবে।

ইসি সচিব জানান, ৩০০ সংসদীয় আসনে মোট ২ হাজার ৭১৬টি মনোনয়নপত্র জমা পড়ে। এর মধ্যে যাচাই-বাছাইয়ে ৭৩১টি মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। তারপর ৫ থেকে আপিল করার সুযোগ দেওয়া হয়। প্রথম দিন ৪২টি, দ্বিতীয় দিন ১৪১টি এবং তৃতীয় দিন ১৫৫টি আপিল আবেদন জমা পড়ে ইসিতে।

Also Read: বিদেশি পর্যবেক্ষক: আবেদনের সময় ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ল

Also Read: চার শতাধিক ওসি-ইউএনও বদলে ইসির সম্মতি

ইসি সচিব বলেন, “১০ তারিখ থেকে পর্যায়ক্রমে আপিলগুলোর শুনানি হবে। ১৭ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষ হবে। ১৮ তারিখ প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে। তখন থেকে প্রচার শুরু হবে।”

নির্বাচনী প্রচার চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোট হবে ৭ জানুয়ারি রোববার।

আগ্রহী ১৭৯ বিদেশি পর্যবেক্ষক

এবারের নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আগ্রহী ১৭৯ জন বিদেশি পর্যবেক্ষকের আবেদন পেয়েছে ইসি। ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল।

ইসি সচিব জানান, বিদেশি পর্যবেক্ষক হিসেবে এ পর্যন্ত ১৩১ জন রেজিস্ট্রেশন করেছেন। আর সাংবাদিক হিসেবে রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৪৮ জন। মোট ১৭৯ জন নিবন্ধন করেছেন।

“এ সংখ্যা বাড়তে পারে। মেইলে আবেদনের পূর্ণাঙ্গ চিত্র ৮ ডিসেম্বর পাওয়া যাবে।”

নতুন ৮৩ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা

ইসি সচিব জাহাংগীর আলম জানান, ৪০তম বিসিএস এর নন ক্যাডার পদের প্রার্থী থেকে উপজেলা নির্বাচন অফিসার হিসেবে ৮৩ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তাদের ১২ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশানে যোগ দিতে বলা হয়েছে।

ইসির জনসংযোগ শাখার বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এই নিয়োগ নির্বাচন কমিশনের কাজে বড় সহায়ক ভূমিকা রাখবে।