ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস? ঘোষণা আসছে সোমবারই

মন্দার মুখোমুখি হওয়া যুক্তরাজ্যে এখন মূল্যস্ফীতির সংকট আর শিল্প খাতে অস্থিরতা চলছে, নতুন প্রধানমন্ত্রীকে এসব সমস্যার মোকাবেলা করতে হবে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Sept 2022, 06:14 AM
Updated : 5 Sept 2022, 06:14 AM

যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির নেতা এবং দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাসের নাম ঘোষণা হতে পারে সোমবারই।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় কনজারভেটিভ পার্টির নেতৃত্বের দৌড়ের ভোটাভুটি শেষ হয়েছে। সোমবার সেই ফল ঘোষণা করার কথা। কনজারভেটিভ পার্টির নতুন প্রধান যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনিই যাবেন ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে।

প্রায় দুমাস ধরে চলা নেতা নির্বাচনের এই প্রক্রিয়ায় চূড়ান্ত ধাপের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস এবং সাবেক চ্যান্সেলর ঋষি সুনাক। তাদের মধ্যে লিজ ট্রাসই এগিয়ে আছেন বলে খবর দিচ্ছে রয়টার্স।

মন্দার মুখোমুখি হওয়া যুক্তরাজ্যে এখন মূল্যস্ফীতির সংকট আর শিল্প খাতে অস্থিরতা চলছে, নতুন প্রধানমন্ত্রীকে এসব সমস্যার মোকাবেলা করতে হবে।

সোমবার ব্রিটিশ সময় বেলা সাড়ে ১১টায় ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির নতুন প্রধানের নাম ঘোষণা করা হবে। আর এর মাধ্যমে শুরু হবে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া।

পার্টিগেট কেলেঙ্কারির কারণে বিরোধিতার মুখে পড়ে জুলাই মাসে দলীয় নেতৃত্ব থেকে পদত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী জনসন। তারপরই কনজারভেটিভ পার্টির নতুন নেতা নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হয়।

কনজারভেটিভ পার্টির নতুন প্রধান মঙ্গলবার রানি এলিজাবেথের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে স্কটল্যান্ড যাবেন। সেখানে রানি ক্ষমতাসীন দলটির নতুন প্রধানকে সরকার গঠন করার আহ্বান জানাবেন।

ট্রাস বা সুনাক, যিনিই ক্ষমতা পান, তিনি হবেন ২০১৫ সালের ভোটের পর ব্রিটেনের চতুর্থ কনজারভেটিভ প্রধানমন্ত্রী।

এই সময়জুড়ে দেশটি একটার পর একটা সংকটের মধ্যে পড়েছে। জুলাইয়ে ১০ দশমিক ১ শতাংশ মুদ্রাস্ফীতির শিকার হওয়া যুক্তরাজ্য দীর্ঘ মন্দার মধ্যে পড়তে যাচ্ছে বলে পূর্বাভাসগুলেতে বলা হয়েছে।

বরিস জনসনের মন্ত্রীসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা ট্রাস (৪৭) ব্রিটেনের জীবনযাত্রার সংকট সামাল দিতে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী হলে দেশে জ্বালানি তেলের মূল্যের ঊর্ধ্বগতির রাশ টেনে ধরতে এক সপ্তাহের মধ্যেই একটি পরিকল্পনা ঘোষণার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

তবে কীভাবে তিনি জ্বালানি তেলের মূল্যের ঊর্ধ্বগতি মোকাবেলা করতে চান সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি। শুধু যুক্তরাজ্য নয় বরং বিশ্ববাজারেই জ্বালানি তেলের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গেছে। গোটা বিশ্বেই এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

আরও পড়ুন:

Also Read: ভোট শেষ, নতুন প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় যুক্তরাজ্য

Also Read: প্রধানমন্ত্রী হলে জ্বালানি সংকটে আশু ব্যবস্থা নেব: লিজ ট্রাস

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক