বাইডেনের পুত্র হান্টারের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ফৌজদারি মামলা

হান্টার বাইডেন বিলাসবহুল জীবনযাপনের পেছন মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার খরচ করলেও কর পরিশোধ করেননি বলে অভিযোগে বলা হয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Dec 2023, 07:50 AM
Updated : 8 Dec 2023, 07:50 AM

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেনের বিরুদ্ধে নতুন একটি ফৌজদারি মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ।

বৃহস্পতিবার দায়ের করা এই মামলায় বলা হয়েছে, হান্টার বিলাসবহুল জীবনযাপনের পেছন মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার খরচ করাকালে ১৪ লাখ ডলার কর পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয়েছেন।

লস অ্যাঞ্জেলস শহরের ইউএস ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট, সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট অব ক্যালিফোর্নিয়ায় দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, হান্টার বাইডেনের (৫৩) বিরুদ্ধে কর ফাঁকির তিনটি গুরুতর অপরাধ ও ছয়টি অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে। ২০১৬ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে এসব অপরাধ করেছেন তিনি।   

রয়টার্স জানিয়েছে, অভিযোগগুলোতে দোষী সাব্যস্ত হলে হান্টারের সর্বোচ্চ ১৭ বছর কারাদণ্ড হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ জানিয়েছে, হান্টারের বিষয়ে তদন্ত চলমান আছে।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, কর দেওয়ার বদলে তিনি ‘মাদক, কলগার্ল ও বন্ধবীদের পেছনে এবং বিলাসবহুল হোটেল, ভাড়া বাড়ি, সুপার কার, দামি পোশাক ও অন্যান্য ব্যক্তিগত সামগ্রী কেনায়’ বিপুল অর্থ ব্যয় করেন।   

তার মাদকাসক্তি ছাড়াতে পুনর্বাসনের জন্য ৭০ হাজার ডলারেরও বেশি খরচ হয়।

রয়টার্স জানায়, এসব বিষয়ে মন্তব্যের জন্য হান্টারের একজন আইনজীবীকে অনুরোধ করা হলেও তিনি তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেননি। হোয়াইট হাউজও এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

হান্টার কখন আদালতে হাজির হবেন তা পরিষ্কার হয়নি। 

মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, তিনি ইউক্রেইনীয় শিল্প গোষ্ঠী বরিসমা এবং চীনের একটি বেসরকারি ইক্যুইটি ফান্ডের পরিচালনা পরিষদে থাকাকালে ‘পর্যাপ্ত উপার্জন’ করতেন। এছাড়া আইনজীবী হিসেবে ও অন্যান্য উৎস থেকেও তার আয় ছিল।  

তদন্তকারি সরকারি কৌঁসুলিরা জানিয়েছেন, হান্টার ২০১৬ থেকে ২০২০ এর অক্টোবর পর্যন্ত ৭০ লাখ ডলারেরও বেশি অর্থ উপার্জন করেছেন। 

অভিযোগ বলা হয়েছে, তিনি যত বেশি আয় করেছেন তত বেশি ব্যয় করেছেন। শুধু ২০১৮ সালেই তিনি ১৮ লাখ ডলারের বেশি ব্যয় করেছেন। কিন্তু ওই বছর কর দেওয়ার জন্য এসব অর্থের কিছুই ব্যবহার করেননি।

চলতি বছরের মাঝামাঝি প্রথম হান্টার বাইডেনের বিরুদ্ধে একটি ফৌজদারি মামলা হয়। ডেলওয়্যারে দায়ের করা ওই মামলার অভিযোগ বলা হয়, হান্টার একটি বন্দুক কেনার সময় তার মাদক ব্যবহার নিয়ে মিথ্য বলেছিলেন। অক্টোবরে ওই অভিযোগের শুনানিতে নিজেকে নির্দোর্ষ দাবি করেছেন হান্টার।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষমতাসীন কোনো প্রেসিডেন্টের সন্তানের বিরুদ্ধে প্রথম ফৌজদারি বিচার এটি।   

আরও পড়ুন:

Also Read: কর ফাঁকি, অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র মামলায় দোষ স্বীকার করছেন হান্টার বাইডেন