৬০০ কোটি ডলারের বিনিময়ে যুক্তরাষ্ট্রের ৫ নাগরিককে ছাড়ল ইরান

তাদের মধ্যে দুজনের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Jan 2024, 10:22 AM
Updated : 26 Jan 2024, 10:22 AM

ইরানের কারাগারে বছরের পর বছর পড়ে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের পাঁচ নাগরিকের দুঃস্বপ্নের অবসান হয়েছে। জব্দ করা ৬০০ কোটি ডলার এজন্য ইরানকে ছেড়ে দিতে হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রকে।

মুক্তি পাওয়া ওই চার পুরুষ ও এক নারী ইরানি হলেও তারা যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব নিয়েছিলেন।

সোমবার তারা মুক্তি পাওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে রওনা হয়ে দোহায় পৌঁছেছেন। তারা মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করার পর ওয়াশিংটনে যাত্রা করবেন।

কাতারের মধ্যস্থতায় কয়েক মাস আলোচনার পর দুই ওয়াশিংটন-তেহরান চুক্তির আওতায় এই বন্দিরা মুক্তি পেলেন। মুক্তিপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন- ৫১ বছর বয়স্ক ব্যবসায়ী সায়মাক নামাজি। তেহরানের কুখ্যাত এভিন কারাগারে তিনি কাটিয়েছেন প্রায় ৮ বছর; আরেক ব্যবসায়ী ৫৯ বছর বয়সী এমাদ শ্রাগি এবং পরিবেশবাদী মোরাদ তাবাজ (৬৭)। বাকি দুজনের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

এই পাঁচজনের বিনিময়ে যুক্তরাষ্ট্রের কারাগারে থাকা পাঁচ ইরানিও মুক্তি পেতে যাচ্ছেন বলে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছেন।

তবে বন্দি বিনিময়ের এই চুক্তিতে ইরানের দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের জব্দ করা ৬০০ কোটি ডলার ফেরত নেওয়া। ওয়াশিংটনের নিষেধাজ্ঞার কারণে দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকা পড়েছিল তেহরানের ৬০০ কোটি ডলার। সেই অর্থ কাতারের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলোতে পাঠানো হয়েছে, যা ইরানের কাছে ফেরত যাবে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র বলে আসছিল, তাদের নাগরিকদেরকে কেবল রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ের জন্য ভিত্তিহীন অভিযোগে বন্দি করেছিল ইরান সরকার।

সংবাদ সূত্র: বিবিসি 

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)