সন্তানের ‘কন্টাক্টস নজরদারির’ টুল আনল স্ন্যাপ

‘ফ্যামিলি সেন্টার’-এ অভিভাবকের আমন্ত্রণে সন্তান সম্মতি দিলেই তার বন্ধু তালিকা এবং আগের সাত দিনে কারা তাকে বার্তা পাঠিয়েছে, সে বিষয়গুলো দেখতে পাবেন অভিভাবক।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 August 2022, 11:17 AM
Updated : 9 August 2022, 11:17 AM

এখন থেকে স্ন্যাপচ্যাটে সন্তান কার সঙ্গে আলাপ করছে সেটি চাইলে দেখতে পাবেন অভিভাবকরা। নিজেদের প্রথম ‘প্যারেন্টাল কন্ট্রোল’ টুল চালু করেছে জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপটি।

নতুন এই টুলে শিশুদের বার্তা দেখার সুবিধা দেয়নি প্রতিষ্ঠানটি।

‘ফ্যামিলি সেন্টার’ নামে পরিচিত এই নতুন ফিচারটি এমন এক সময়ে এলো, যখন অনলাইনে শিশু নিরাপত্তার বিষয়ে সমালোচনার মুখে পড়ছে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যম প্ল্যাটফর্ম।

২০২১ সালের অক্টোবর মাসে স্ন্যাপ ও তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী টিকটক এবং ইউটিউব সাক্ষ্য দিয়েছে মার্কিন আইন প্রণেতাদের কাছে। প্ল্যাটফর্মগুলোর বিরুদ্ধে কম বয়সী ব্যবহারকারীদের ‘বুলিং’ ও তাদের বিবেচনায় ‘ক্ষতিকারক’ কনটেন্ট দেখানোর অভিযোগ উঠেছে।

গত বছরের ডিসেম্বর মাসে শিশুদের অনলাইন নিরাপত্তার বিষয়ে মার্কিন সিনেটের শুনানিতে সাক্ষ্য দিয়েছিল ইনস্টাগ্রাম।

এর আগে ফেইসবুকের অভ্যন্তরীণ নথি ফাঁস থেকে জানা গেছে কম বয়সী ব্যবহারকারীদের মানসিক স্বাস্থ্য ও শারীরিক ক্ষতির পেছনে অ্যাপটির ভূমিকা ছিল।

রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, অভিভাবক তার সন্তানকে আমন্ত্রণ জানাতে পারবেন স্ন্যাপচ্যাটের ‘ফ্যামিলি সেন্টার’-এ। ওই আমন্ত্রণে সন্তানের সম্মতি মিললেই তার বন্ধু তালিকা এবং আগের সাত দিনে কারা তাকে বার্তা পাঠিয়েছে, সে বিষয়গুলো দেখতে পাবেন মা-বাবা।

পাশাপাশি, সন্দেহজনক কোনো অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে গোপনে অভিযোগও জানাতে পারবেন তারা।

“যাই হোক, সন্তানের পাঠানো বা পাওয়া গোপন কনটেন্ট অথবা বার্তা দেখতে পারবেন না অভিভাবকরা।” --এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন স্ন্যাপের মেসেজিং পণ্য প্রধান জেরেমি ভস।

তিনি আরও বলেন, নিয়ন্ত্রণ এবং সুরক্ষার পাশাপাশি নিরাপত্তা ও ভালো থাকার ব্যবস্থা বাড়ানোর ক্ষেত্রেও সঠিক পদ্ধতি অবলম্বন করছে নতুন এই টুল।

আসন্ন মাসগুলোতে আরও কিছু ফিচার আনার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে স্ন্যাপ। এর মধ্যে আছে সন্তান কোনো ব্যবহারকারীর বিরুদ্ধে হেনস্তার অভিযোগ আনলে অভিভাবককে নোটিফিকেশন পাঠানোর বিষয়। এ ছাড়াও নিজেদের ইউটিউব চ্যানেলে এই টুলের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে মেসেজিং সেবাটি।

ফ্যামিলি সেন্টারের আগেও নিজস্ব কয়েকটি ‘শিশু নিরাপত্তা বিষয়ক নীতি’ ছিল স্ন্যাপের। এ ছাড়া, ডিফল্ট হিসেবেই গোপন থাকে ১৮ বছরের কম বয়সী স্ন্যাপচ্যাট ব্যবহারকারীর প্রোফাইল।

কোন ব্যবহারকারীর সার্চের ফলাফলে যদি তাদের মধ্যে কোনো ‘সাধারণ বন্ধু’ থাকে, তবেই কেবল এই ধরনের প্রোফাইল ‘সাজেস্টেড ফ্রেন্ড’ হিসেবে দেখা যায়। এ ছাড়া, মাধ্যমটিতে সাইন আপ করতে ব্যবহারকারীদের বয়স অন্তত ১৩ বছর হতে হয়।

ইনস্টাগ্রামের অনুরূপ পদক্ষেপকে অনুসরণ করেছে স্ন্যাপ-এর নতুন টুল। তারা নিজস্ব মাধ্যমে ‘ফ্যামিলি সেন্টার’ টুল এনেছে মার্চেই, যেখানে সন্তান কোন ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ফলো করে ও অ্যাপে তারা কতক্ষণ সময় কাটায়, মা-বাবাকে সেই বিষয়গুলো নজরদারির অনুমতি দিয়েছে মাধ্যমটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক