সংবাদে এআই ব্যবহার করতে নতুন জোট বাঁধছে মাইক্রোসফট

নিবন্ধগুলো লেখার দায়িত্ব পুরোপুরি সংবাদকর্মীদের ওপর বর্তালেও এর গবেষণা টুল হিসেবে কার্যকর ভূমিকা রাখবে এআই প্রযুক্তি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 11:46 AM
Updated : 6 Feb 2024, 11:46 AM

খবরে চ্যাটজিপিটির সহায়তা ব্যবহারের লক্ষ্যে যুক্তরাষ্টের সংবাদ সাইট সেমাফোরের সঙ্গে জোট বাধছে মাইক্রোসফট।

ব্রিটিশ দৈনিক ফাইনান্সিয়াল টাইমস প্রতিবেদনে বলেছে, সংবাদ খাতের বিভিন্ন যৌথ উদ্যোগের সর্বশেষ উদাহরণ মঙ্গলবার মাইক্রোসফটের দেওয়া এ ঘোষণা। এর আগে মাইক্রোসফট ও এর সহযোগী কোম্পানি ওপেনএআইয়ের বিরুদ্ধে কপিরাইট লঙ্ঘনের মামলা করেছিল মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস।

সেমাফোরের সহ-প্রতিষ্ঠাতা হচ্ছেন জনপ্রিয় মার্কিন সংবাদমাধ্যম ‘বাজফিড’-এর সাবেক সম্পাদক বেন স্মিথ। নতুন চুক্তির অংশ হিসেবে তারা ‘সিগনাল’ নামে একটি নিউজ ফিড বানাবেন, যা সরাসরি মাইক্রোসফটের মাধ্যমে প্রকাশ না পেলেও এর পেছনে কোম্পানিটি ‘বড় অংক ঢালবে’ বলে প্রতিবেদনে লিখেছে প্রযুক্তি সাইট এনগ্যাজেট।

নতুন এ ফিডে ব্রেকিং নিউজ ও সংবাদ বিশ্লেষণের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার পাশাপাশি প্রতিদিন এতে ডজনখানেক বা এর চেয়েও বেশি নিবন্ধ থাকবে। আর নিবন্ধগুলো লেখার দায়িত্ব পুরোপুরি সংবাদকর্মীদের ওপর বর্তালেও এর গবেষণা টুল হিসেবে কার্যকর ভূমিকা রাখবে এআই প্রযুক্তি।

এ কার্যক্রমে একাধিক ভাষায় বিশ্বের অন্যান্য সংবাদ উৎস থেকে বিভিন্ন ব্রেকিং নিউজভিত্তিক প্রতিবেদন দ্রুত খুঁজে পেতে সেমাফোরের সংবাদ দলকে সাহায্য করবে এআইভিত্তিক অনুবাদক টুল।

এক্ষেত্রে একটি নিবন্ধে চীনা, ভারতীয় বা অন্যান্য উৎস অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে, যেখানে প্রাসঙ্গিক তথ্যের পাশাপাশি বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির সংক্ষিপ্তসার যোগ করার সুযোগ পাবেন সংবাদকর্মীরা।

“নতুন প্রজন্মে টিকে থাকতে ও নিজেদের বিকাশে এইসব এআই টুল গ্রহণ করতে হবে সাংবাদিকদের,” ফাইনান্সিয়াল টাইমসকে বলেন মাইক্রোসফটের সাংবাদিকতা বিভাগের পরিচালক নরিন গিলেস্পি।

এরইমধ্যে নিউজরুমে চ্যাটজিপিটি ও অন্যান্য এআই চ্যাটবটের ব্যবহার বিতর্কের ঝড় তুলেছে।  এআই ‘হ্যালুসিনেট’ (অসত্য কনটেন্ট তৈরি) করার পাশাপাশি নানারকম উদ্ভট আচরণ দেখাতে পারে, এমন ঝুঁকি থাকার পরও সম্প্রতি ‘সিনেট’-এর মতো বেশ কয়েকটি সাইটে বড় পরিসরে সংবাদ তৈরির জন্য এআই ব্যবহার করতে দেখা গেছে। তবে সেগুলো সম্পাদনা করেছেন মানব সম্পাদকরাই।

বিভিন্ন নিউজরুম চেষ্টা করে যাচ্ছে কীভাবে তাদের প্রতিবেদন আরও উন্নত করা যায় ও ‘এসইও বা সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশান’-বান্ধব কনটেন্ট তৈরি করে কীভাবে চ্যাটবটের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা যায়।

চ্যাটবটকে প্রশিক্ষণ দিতে ওপেনএআই ও মাইক্রোসফট মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমসের লাখ লাখ সংবাদ নিবন্ধ বিনামূল্যে ব্যবহার করেছে, এমন অভিযোগে গত বছরের শেষ দিকে কোম্পানি দুটির বিরুদ্ধে মামলা করছে পত্রিকাটি।

মামলায় কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য কোনো নির্দিষ্ট ক্ষতিপূরণ দাবি না করলেও এর আনুমানিক ক্ষতির পরিমাণ ‘শত কোটি ডলারও’ হতে পারে বলে সে সময় উঠে এসেছিল রয়টার্সের প্রতিবেদনে।

চ্যাটজিপিটির নির্মাতাদের বিরুদ্ধে কোনো শীর্ষ সংবাদমাধ্যমের কপিরাইট লঙ্ঘনের মামলা করার প্রথম নজিরও এটি।

মাইক্রোসফট মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ‘ক্রেগ নিউমার্ক স্কুল অফ জার্নালিজম’, ‘গ্রাউন্ডট্রুথ প্রজেক্ট’, ‘অনলাইন নিউজ অ্যাসোসিয়েশন’ ও অন্যান্য সাংবাদ সংস্থাগুলোর সঙ্গে সহযোগিতার ঘোষণা করেছে৷