মেসির চোখে বিশ্বকাপ জিততে পারে যারা

নিজেদের সঙ্গে আরও তিনটি দলকে বিশ্বকাপ জয়ের দাবিদার হিসেবে দেখছেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Dec 2022, 05:05 PM
Updated : 4 Dec 2022, 05:05 PM

বিশ্বকাপ শুরুর আগে নিজেদের শক্তিশালী দল দাবি করলেও সরাসরি সেভাবে ফেভারিট বলতে চাননি লিওনেল মেসি। তবে সৌদি আরবের বিপক্ষে হারের ধাক্কা কাটিয়ে দল পুরনো ছন্দে ফেরায় এবং নকআউট পর্বের প্রথম ধাপ পেরিয়ে যেন আরও আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। কাতার বিশ্বকাপ জয়ের ফেভারিট প্রশ্নে মেসি নিজেদের নামটাই বললেন সবার আগে। 

টানা ৩৬ ম্যাচ এবং প্রায় সাড়ে তিন বছর অপরাজিত থেকে কাতারে পা রাখে আর্জেন্টিনা। তবে অভিযানের শুরুতেই শিকার হয় অঘটনের; সৌদি আরবের বিপক্ষে এগিয়ে গিয়েও হেরে বসে ২-১ গোলে। 

সেই ধাক্কা সামাল দিয়ে ধীরে ধীরে নিজেদের চেনা রূপে মেলে ধরেছে আর্জেন্টিনা। মেক্সিকো ও পোল্যান্ডকে হারিয়ে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা গ্রুপ সেরা হয়ে জায়গা করে নেয় শেষ ষোলোয়। 

এরপর শেষ ষোলোয় অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে এখন তারা সেমি-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের অপেক্ষায়। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ ২০১০ আসরের রানার্সআপ নেদারল্যান্ডস। আগামী শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত একটায় শুরু দুই দলের মাঠের লড়াই। 

অস্ট্রেলিয়াকে শনিবার হারানোর পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মেসি বলেন, সম্ভাবনায় আছেন তারাও।

“আর্জেন্টিনা (বিশ্বকাপ জেতার) সম্ভাব্য দলগুলোর একটি। আর্জেন্টিনা শক্তিশালী এবং সবসময়ই সেরা দলগুলোর মধ্যে থাকে।” 

“আমরা জানি, আমরা ফেভারিট দলগুলোর একটি। তবে আমাদের এটা মাঠে প্রমাণ করতে হবে। আর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আবারও সেটা প্রমাণ করতে পেরেছি।” 

আর্জেন্টিনার মতো অঘটনের শিকার হয়েছে ফ্রান্স, স্পেন, ব্রাজিলও। তিন দলই গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ রাউন্ডে হেরেছে। শিরোপাধারী ফরাসিদের হারিয়ে দেয় তিউনিসিয়া। সাবেক দুই বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেন ও ব্রাজিল হারে যথাক্রমে জাপান ও ক্যামেরুনের বিপক্ষে। 

এই পরাজয়গুলোকে অবশ্য তেমন কিছু মনে করছেন না মেসি। 

“আমরা সবাই বিশ্বকাপের সব ম্যাচই দেখার চেষ্টা করি। ক্যামেরুনের বিপক্ষে হারলেও ব্রাজিল ভালো খেলছে। তারা এখনও সবচেয়ে ফেভারিট দলগুলোর একটি।” 

“ফ্রান্সও ভালো খেলছে। আর স্পেন, ওরা জাপানের বিপক্ষে হারলেও বেশ ভালো খেলছে। তার নিজেদের খেলা নিয়ে বেশ পরিষ্কার। তাদের থেকে বল নেওয়া খুবই কঠিন, যেহেতু তারা লম্বা সময় ধরে বল দখলে নিয়ন্ত্রণ করে। তাদের হারানো খুবই কঠিন হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক