‘ছোট দল ভাবলেই বিপদে পড়তে হবে’

তথাকথিত ছোট দলগুলোর বিপক্ষে আত্মতুষ্টিতে ভোগার সুযোগ নেই বলে মনে করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড উসমান দেম্বেলে।  

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Nov 2022, 11:51 AM
Updated : 24 Nov 2022, 11:51 AM

অঘটনের বিশ্বকাপ? কাতার আসরে প্রথম চার দিনের পর এমন কিছু বললে হয়তো ভুল হবে না। নামে-ভারে, শক্তি-সামর্থ্যে কিংবা র‍্যাঙ্কিংয়ে অনেক পিছিয়ে থাকা দলগুলি হারিয়ে দিচ্ছে ফেভারিট দলগুলিকে। আর্জেন্টিনাকে সৌদি আরবের স্তব্ধ করে দেওয়া এবং জাপানের কাছে জার্মানির পরাজয়ের পর ফ্রান্সের ফরোয়ার্ড উসমান দেম্বেলে বললেন, তথাকথিত ছোট দলগুলোর বিপক্ষে আত্মতুষ্টিতে ভোগার সুযোগ নেই কারও। 

গত মঙ্গলবার শুরুতে পিছিয়ে পড়েও বিরতির পর পাঁচ মিনিটের দুই গোলে সৌদি আরব ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে দেয় দুবারের সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাকে, যারা সাড়ে তিন বছরে টানা ৩৬ ম্যাচ অপরাজিত থেকে ম্যাচটি খেলতে নেমেছিল।

পরদিন একইভাবে প্রথমে পিছিয়ে পড়েও দ্বিতীয়ার্ধে আট মিনিটের দুই গোলে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে ২-১ ব্যধানে হারায় এশিয়ার আরেক দেশ জাপান।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের শুরুটা হয়েছে জয় দিয়ে। তবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তারাও পিছিয়ে পড়েছিল শুরুতে। পরে ঘুরে দাঁড়িয়ে ৪-১ গোলের জয় তুলে নেয় দিদিয়ে দেশমের দল।     

নিজেদের পরের ম্যাচে শনিবার ডেনমার্কের মুখোমুখি হবে ফরাসিরা। তার আগে ২৫ বছর বয়সী বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড দেম্বেলে দিলেন সতর্কবার্তা।

“আধুনিক ফুটবলে ছোট দল বলে কিছু নেই। নিজেদের খেলার গতি কমিয়ে বিপদে পড়তে হবে। এখন সবাই টেকনিক্যালি ও ট্যাকটিক্যালি অনেক কাজ করে। আমরা দেখেছি, সৌদি আরব টেকনিক্যাল দৃষ্টিকোণ থেকে কতটা অবিশ্বাস্য ছিল। ডেনমার্কের বিপক্ষেও আমরা এটা দেখেছি।” 

এবারের উয়েফা নেশন্স লিগে দুবারের দেখায়ই ডেনমার্কের বিপক্ষে হেরেছে ফ্রান্স। ডেনিশদের বিশ্বকাপ অভিযানের শুরুটা যদিও ভালো হয়নি, গোলশূন্য ড্র করেছে তিউনিসিয়ার সঙ্গে। তবে দলটির বিপক্ষে নিজেদের সবশেষ দুই ম্যাচের অভিজ্ঞতায় এবারও কঠিন চ্যালেঞ্জ দেখছেন ফরাসি ডিফেন্ডার দায়দ উপেমেকানো। 

"আমরা আমাদের প্রথম জয়ের ভাবনায় বুঁদ হয়ে নেই, এরই মধ্যে ডেনমার্ক ম্যাচে দৃষ্টি দিয়েছি। এই প্রতিযোগিতায় ভালো শুরু করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখন ডেনমার্ক আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে। আমরা জানি, তারা দুর্দান্ত দল। আমরা সম্প্রতি তাদের বিপক্ষে ভুগেছি। তাই আমাদের এবার তাদের হারানোর পথ খুঁজে বের করার চেষ্টা করতে হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক