‘সমালোচনাকে শক্তিতে পরিণত করে ফিরে এসো’, নেইমারের প্রতি রোনালদো

চোটে বাইরে থাকা উত্তরসূরির প্রতি সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দিলেন ‘দা ফেনোমেনন’ রোনালদো।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Nov 2022, 01:19 PM
Updated : 28 Nov 2022, 01:19 PM

লম্বা সময় ধরে নেইমার ব্রাজিল দলের প্রাণভোমরা হলেও নিজ দেশেই তার প্রতি পূর্ণ সমর্থন নেই। এই তারকার প্রতি অনেকের বিদ্বেষ এতটাই তীব্র যে, চোট কাটিয়ে তিনি বিশ্বকাপে যেন আর না ফেরেন, সেই প্রার্থনাও চলছে! তাদের এমন আচরণে ক্ষুদ্ধ রোনালদো ভরসার হাত রাখলেন উত্তরসূরির কাঁধে। ‘দা ফেনোমেনন’ আশাবাদী, সমালোচনাকে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজে লাগিয়ে আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসবেন নেইমার। 

‘জি’ গ্রুপে গত শুক্রবার সার্বিয়ার বিপক্ষে ব্রাজিলের ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে গোড়ালিতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন নেইমার। পরে ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশন জানায়, সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে পরের ম্যাচে খেলতে পারবেন না ৩০ বছর বয়সী এই ফুটবলারর। যদিও ব্রাজিল দলের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র রয়টার্সকে জানায়, ক্যামেরুনের বিপক্ষেও পাওয়া যাবে না নেইমারকে। 

ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জয়ের অভিযানে দলের সেরা খেলোয়াড়কে হারানো ব্রাজিলের জন্য বড় ধাক্কা হলেও দেশটিতে তা নিয়ে রয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। অনেকেই চান, নেইমার যেন মাঠের বাইরেই থাকেন এবং বিশ্বকাপে আর অংশ না নেন। 

গত মাসে অনুষ্ঠিত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে যাওয়া প্রার্থী জাইর বোলসোনারোকে সমর্থন দিয়েছিলেন নেইমার। এরপর থেকেই দেশটিতে পিএসজির এই খেলোয়াড়ের প্রতি বিদ্বেষ শুরু হয়। 

কঠিন সময়ে নেইমারের সমর্থনে এগিয়ে এলেন ব্রাজিলের দুবারের বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক স্ট্রাইকার রোনালদো। রোববার ইনস্টাগ্রামে খোলা চিঠিতে উত্তরসূরির প্রতি নিজের ও দেশবাসীর সমর্থন তুলে ধরেন। লেখেন, কিছু অংশ বাদে পুরো দেশের জনগণই নেইমারকে ভালোবাসে। 

“আমি নিশ্চিত, আমার মতো বেশিরভাগ ব্রাজিলিয়ানই তোমার প্রশংসা করে এবং ভালোবাসে। তোমার প্রতিভা তোমাকে এতদূর নিয়ে গেছে, বিশ্বের প্রতিটি কোণে তোমার জন্য ভালোবাসা ও প্রশংসা রয়েছে। আর তুমি যে জায়গায় পৌঁছেছো, সেখানে থাকার কারণে এত ইর্ষা ও বিদ্বেষ মোকাবেলা করতে হবে তোমার।” 

“এই ধ্বংসাত্মক শক্তির (নেইমারের সমালোচক) মৌখিক সহিংসতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে আজ আমি তোমাকে লিখছি: আরও শক্তিশালী হয়ে, আরও স্মার্ট হয়ে, লক্ষ্যের জন্য ক্ষুধার্ত হয়ে ফিরে এসো। মাঠে ও মাঠের বাইরে তুমি যা কিছু ভালো করো, তা তোমার প্রতি হিংসার চেয়ে অনেক বড়।” 

রোনালদো মনে করেন, বিশ্বজুড়ে নেইমারের প্রতি ভক্তদের ভালোবাসা ও সম্মানের কাছে ক্ষুদ্র একটি গোষ্ঠীর ঘৃণা হেরে যাবে। 

“এক সেকেন্ডের জন্যও ভুলে যেওনা সেই পথচলা, যা তোমাকে বিশ্ব ফুটবলের আইডল বানিয়েছে। ব্রাজিল তোমাকে ভালোবাসে! প্রকৃত ভক্তদের, যারা তোমার পাশে আছে- তাদের তোমার গোল, ড্রিবল, সাহসিকতা ও আনন্দের প্রয়োজন! দেশের অধিকাংশ জায়গা থেকে আসা ভালোবাসা উপভোগ করো। আর এসব ঘৃণা বারুদে পরিণত হোক।” 

ব্রাজিলের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলস্কোরার নেইমার (৭৫ গোল)। তার সামনে আছেন কেবল কিংবদন্তি পেলে (৭৭ গোল)।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক