প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের গোলরক্ষক কে?

আন্তর্জাতিক ফুটবলে অনভিজ্ঞ তিন গোলরক্ষককে নিয়ে বিশ্বকাপে এসেছে ডাচরা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 04:13 AM
Updated : 21 Nov 2022, 04:13 AM

অভিজ্ঞ ইয়াসপের সিলেসেনের জায়গা হয়নি দলে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে অনভিজ্ঞ তিন গোলরক্ষককে নিয়ে বিশ্বকাপে এসেছে নেদারল্যান্ডস। তাদের মধ্যে একজনের এখনও জাতীয় দলে অভিষেকই হয়নি। বাকি দুজনের সম্মিলিত ম্যাচ খেলার সংখ্যা স্পর্শ করেনি দুই অঙ্ক। প্রথম ম্যাচে ডাচদের গোলপোস্টের দায়িত্ব কে সামলাবেন, ম্যাচের আগের দিনও তা নিয়ে রয়ে গেছে ধোঁয়াশা।

আল থুমামা স্টেডিয়ামে সোমবার সেনেগালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে নেদারল্যান্ডস। ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত দশটায়। 

২০১৪ বিশ্বকাপে খেলা এবং জাতীয় দলের হয়ে ৬৩ ম্যাচের অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ সিলেসেন কাতার আসরে নেদারল্যান্ডসের প্রথম পছন্দের গোলরক্ষক হবেন বলে ধারণা করেছিল প্রায় সবাই। তবে ৩৩ বছর বয়সী এই গোলরক্ষককে দলে রাখেননি কোচ লুই ফন খাল। দলে জায়গা পাওয়া তিন গোলরক্ষকের সম্মিলিত আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সংখ্যা স্রেফ ৮। 

গত বছরের অগাস্টে তৃতীয় মেয়াদে নেদারল্যান্ডসের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই ফন খাল প্রথম পছন্দের গোলরক্ষক বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছেন।  

সেনেগালের বিপক্ষে আয়াক্সের গোলরক্ষক রেমকো পাসভিরকে পোস্টের নিচে দেখা যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ৩৮ বছর বয়সে জাতীয় দলের হয়ে তার অভিষেক হয় গত সেপ্টেম্বরে, উয়েফা নেশন্স লিগে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। দুই দিন পর বেলজিয়ামের বিপক্ষে ম্যাচেও জায়গা ধরে রাখেন তিনি। বিশ্বকাপের আগে যেটি ছিল নেদারল্যান্ডসের শেষ ম্যাচ। 

পাসভিরকে প্রাথমিকভাবে ব্যাকআপ গোলরক্ষক হিসেবে দলে টানে আয়াক্স। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা ও চোটের কারণে দলটি প্রথম পছন্দের দুই গোলরক্ষককে হারিয়ে ফেললে সুযোগ পেয়ে যান পাসভির। এখন ৩৯ বছর বয়সে বিশ্বকাপে খেলার হাতছানি তার সামনে। 

ফন খাল এই দফায় দায়িত্ব নেওয়ার পর তার প্রথম ৬ ম্যাচে গোলপোস্টে রাখেন জাস্টিন বেইলোকে। পরের ৯ ম্যাচে আর তাকে খেলানো হয়নি। দলের আরেক গোলরক্ষক আন্ড্রিস নোপার্ট এখনও আন্তর্জাতিক অভিষেকের অপেক্ষায় আছেন। 

আগের কোচ ফ্রাঙ্ক ডি বোরের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার পর ফন খাল ১৫ ম্যাচের মধ্যে চারটিতে মাঠে নামিয়েছেন মার্ক ফ্লেকেনকে, সিলেসেনকে দুই ম্যাচে। 

দল ঘোষণার পর ফন খাল বলেছিলেন, ক্লাবের হয়ে ফর্মে নেই বলে বাদ দেওয়া হয়েছে সিলেসেনকে। 

বিশ্বকাপ অভিযান শুরুর ম্যাচে কাকে তিনি গোলপোস্টে রাখেন, সেটিই এখন দেখার বিষয়। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক