সিঙ্গাপুরকে এবার ৮ গোলে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ

সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে প্রথমার্ধেই তিন গোল করে চালকের আসনে বসা বাংলাদেশ দাপুটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Dec 2023, 09:59 AM
Updated : 4 Dec 2023, 09:59 AM

বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জ জানাতে চেয়েছিল সিঙ্গাপুর। কিন্তু মাঠে নিজেদের মেলে ধরতে পুরোপুরি ব্যর্থ হলো তারা। লড়াইটা তাই হলো একেবারেই একপেশে। ছন্দময় ও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলা ঋতুপর্ণা চাকমা, তহুরা খাতুনদের কোনো চ্যালেঞ্জই জানাতে পারল না সিঙ্গাপুর। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে থাকা প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দিয়ে জয়োৎসব করল বাংলাদেশ। 

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সোমবার দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচে সিঙ্গাপুরকে ৮-০ গোলে হারায় বাংলাদেশ। প্রথমার্ধে তিন গোল করা মেয়েরা দ্বিতীয়ার্ধে জালের দেখা পায় আরও পাঁচবার।

জোড়া গোল উপহার দেন ঋতুপর্ণা ও তহুরা। একটি করে গোল সানজিদা খাতুন, সাবিনা খাতুন, মাতসুশিমা সুমাইয়া ও শামসুন্নাহার জুনিয়রের।

এ নিয়ে সিঙ্গাপুরকে টানা দুই ম্যাচে হারাল বাংলাদেশ। গত শুক্রবার প্রথম ম্যাচে ৩-০ গোলে জিতেছিল সাইফুল বারী টিটুর দল। সেদিন আফিদা খাতুন দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর জোড়া গোল করেছিলেন তহুরা।

তৃতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত বাংলাদেশ। সাবিনার জোরাল শট গোলরক্ষক ফেরালেও গ্লাভসে জমাতে পারেননি; সামনে থাকা তহুরার ফিরতি শট ক্রসবারে প্রতিহত হয়। একটু পর সাবিনার শট উড়ে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে।

একাদশ মিনিটে নষ্ট হয় আরেকটি ভালো সুযোগ। সাবিনার ক্রসে দূরের পোস্টে থাকা তহুরা পজিশন মতো না থাকায় টোকা দিতে পারেননি। তবে এই ফরোয়ার্ডের গোলেই ষোড়শ মিনিটে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

এ গোলে ফুটে ওঠে মেয়েদের ছন্দময় ফুটবলের ছবি। সাবিনার ফ্রি কিকের পর আফিদা বুটের টোকায় বল বাড়ান বক্সে, মাসুরা পারভীনের হেড পাস থেকে হেডেই জাল খুঁজে নেন তহুরা।

এই গোলের রেশ থাকতে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বাংলাদেশ। অষ্টাদশ মিনিটে সাবিনার কর্নারে বক্সে জটলার ভেতর থেকে আলতো টোকায় জাল খুঁজে নেন ঋতুপর্ণা।

২৪তম মিনিটের গোলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ মুঠোয় নেয় বাংলাদেশ। ঋতুপর্ণার শট গোলরক্ষকের গ্লাভস গলে বেরিয়ে যায়, সুযোগসন্ধানী তহুরা দ্রুত টোকায় ঠিকানা খুঁজে নেন। একটু পর ঋতুপর্ণার ক্রসে অনেকটা লাফিয়ে তহুরা পা ছোঁয়ালেও বল যায় বাইরে।

দ্বিতীয়ার্ধেও একই ছন্দে, আগ্রাসী ফুটবল খেলতে থাকে মেয়েরা। পায়ের কারিকুরিতে রক্ষণ চিরে বল বের করে নিলেও সাবিনা ঠিকঠাক তহুরাকে পাস দিতে না পারলে নষ্ট হয় ভালো সুযোগ।

এরপর ৫০তম মিনিটে ডান দিক দিয়ে কোনাকুনি শটে সানজিদা জালে বল জড়ালেও গোল হয়নি অফসাইডের কারণে। ৫৬তম মিনিটে এই মিডফিল্ডারের গোলেই স্কোরলাইন হয় ৪-০। মাঝমাঠের একটু উপর থেকে মারিয়া মান্দার থ্রু পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ঋতুপর্ণা কাটব্যাক করেন বক্সে, তহুরার শট গোলরক্ষক আটকানোর পর ফিরতি শটে লক্ষ্যভেদ করেন সানজিদা।

ছয় মিনিট পর আরেকটি গোলে বড় জয়ের পথে ছুটতে থাকে বাংলাদেশ। সানজিদার পাস ধরে ঋতুপর্ণা দেখেশুনে বাম পায়ের দারুণ উঁচু শটে কাছের পোস্ট দিয়ে পরাস্ত করেন গোলরক্ষককে।

৬৯তম মিনিটে তহুরা জালে বল জড়ালেও গোল হয়নি অফসাইডের কারণে। পাঁচ মিনিটে পর ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেয় বাংলাদেশ। সানজিদা ও তহুরার বদলি নামার পরই ঝলক দেখান মাতসুশিমা সুমাইয়া ও শামসুন্নাহার জুনিয়র। মাতসুশিমার পাস ধরে বক্সে কাটব্যাক করেন শামসুন্নাহার, নিখুঁত শটে গোলের খাতায় নাম তোলেন অধিনায়ক সাবিনা।

৮৭তম মিনিটে আবারও গোলের আনন্দে মেতে ওঠে গ্যালারি। সাবিনার ফ্রি কিকের পর কয়েক পা ঘুরে বক্সেই বল পেয়ে যান মাতসুশিমা; দৃষ্টিনন্দন ভলিতে জাল খুঁজে নেন এই ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে ঋতপুর্ণার কাটব্যাকে গোলমুখ থেকে টোকায় স্কোরলাইন ৮-০ করেন শামসুন্নাহার জুনিয়র।

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথম সিঙ্গাপুরের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। জালান বেসার স্টেডিয়ামে সেই প্রীতি ম্যাচে ৩-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। এবার তাদেরকে দুই ম্যাচেই হারাল মেয়েরা।