নির্বাচন পেছানোর সুযোগ আছে: নির্বাচন কমিশনার আনিছুর

“যদি ৭০ ভাগই অংশ নিয়ে থাকে তবে নির্বাচনে প্রভাব পড়ার কোনো কারণ নেই।”

সিলেট প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Nov 2023, 02:54 PM
Updated : 23 Nov 2023, 02:54 PM

‘একটি দল’ নির্বাচনে এলে নির্বাচন পেছানোর বিষয়টি বিবেচনা করা যাবে বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান।

মূলত বিএনপির প্রতি এ ধরনের ইঙ্গিত রেখে কমিশনার বলেছেন, “তারা নির্বাচনে আসলে আমরা বিবেচনা করব। আমাদের সুযোগ আছে পেছানোর। কারণ, পরে যথেষ্ট সময় আছে। তবে এখন পর্যন্ত কারো কাছ থেকে ওই রকম পাইনি।”

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সিলেট ও সুনামগঞ্জের নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। 

নির্বাচন না করলে দেশে সাংবিধানিক শূন্যতা সৃষ্টি হবে জানিয়ে আনিছুর রহমান বলেন, “নির্বাচন কারো জন্য অপেক্ষা করবে না। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার জন্য নির্বাচন করতে হবে, না হয় সাংবিধানিক শূন্যতা সৃষ্টি হবে। নিশ্চয়ই এটা আমাদের কাম্য হতে পারে না।

নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সবাইকে নিয়ে নির্বাচন করার পরিকল্পনা আছে কি-না এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “শতভাগ কখনোই আসেনি, ইতিহাস বলে। অধিকাংশ দল নির্বাচন করে, সেটাই তখন নির্বাচনি আমেজ চলে আসে। আমরা দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে বরাবরই আহ্বান জানাচ্ছি, আমাদের নিবন্ধিত ৪৪টা দলের সবাই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক।”

বিএনপি নির্বাচনে না এলে প্রভাব পড়ার কোনো আশঙ্কা আছে কি-না এমন প্রশ্নে আনিছুর রহমান বলেন, “গণমাধ্যমে আসা তথ্য অনুযায়ী, ৭০ ভাগ দল নির্বাচনে অংশগ্রহণের কথা উঠছে। ৭০ ভাগ যদি হয়ে থাকে, যদিও কত ভাগ সেটি নির্বাচন কমিশন বিশ্লেষণ করেনি। যদি ৭০ ভাগই অংশ নিয়ে থাকে তবে নির্বাচনে প্রভাব পড়ার কোনো কারণ নেই।

নির্বাচনি পরিবেশ সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনার বলেন, “এখন পর্যন্ত নির্বাচনি পরিবেশ বিঘ্ন হওয়ার মত কিছু দেখছি না। যেহেতু একটা চলমান রাজনৈতিক কর্মসূচি আছে, সেটাকে কেন্দ্র করে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু ঘটনা হয়েছে।

“সেটার সঙ্গে নির্বাচনকে মেলানো ঠিক হবে না। এটা নির্বাচনকে উপলক্ষ্য করেই হচ্ছে, কিন্তু নির্বাচনী পরিবেশ বিঘ্ন করছে এমন কিছু পরিলক্ষিত হয়নি।”