সিরাজগঞ্জে শিবিরের ১৫ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

পুলিশ জানায়, তাদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 02:09 PM
Updated : 6 Feb 2024, 02:09 PM

সিরাজগঞ্জ শহরে নাশকতা চেষ্টাকালে ছাত্র শিবিরের ১৫ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার ভোরে শহরের মতি সাহেবের ঘাট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে সদর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান।

গ্রেপ্তাররা হলেন- সদর উপজেলার কাদাই এলাকার হাসানুর রহমান হাসান (২২), ভারাঙ্গার মো. মুসা (২০), নয়াচড়ার ইসলাম শেখ (২১), চরছোনগাছার রবিউল ইসলাম (২৩), কয়েলগাতি গ্রামের খালিদ হাসান (১৯), বানিয়াগাতি গ্রামের তারিকুল ইসলাম (২০), পোড়াবাড়ি গ্রামের আল ছাহাব (১৭), পাইকপাড়ার হুমায়ুন কবির (২০), ভারাঙ্গা গ্রামের লাদেন শেখ (১৯), জারিলা গ্রামের সাব্বির হোসেন (১৭), জারিলা পোড়াবাড়ি গ্রামের রাজু আহম্মেদ (২০), একই গ্রামের নাজমুল হাসান (১৭), চন্দ্রকোনার মো. আহাদ (১৬), বানিয়াগাতির শরিফুল ইসলাম (১৯) এবং সয়াধানগড়া মধ্যপাড়ার আবির হোসেন সোহান ওরফে সৌভিক (১৬)।

ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, “ভোর ৬টার দিকে ওই এলাকায় ছাত্র শিবিরের নেতা-কর্মীরা জামায়াতে ইসলামী হয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আশপাশের এলাকায় নাশকতা করার চেষ্টা করছিল।

“খবর পেয়ে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৫জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকিরা পালিয়ে যায়। এ সময় তাদের কাছ থেকে দেশীয় অস্ত্র ও বোমার আলামত উদ্ধার করা হয়।“

সিরাজুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনার শহরের দুই নম্বর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো. সোহাগ বাদী হয়ে সদর থানায় নাশকতার মামলা করেছে। মামলায় জেলা জামায়াতে ইসলামীর আমির শাহিনুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলামসহ ১৭ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ১০-১২জনকে আসামি করা হয়।

বিকেলে গ্রেপ্তারদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।