গাছে ঝুলছিল কৃষকের লাশ, স্বজনদের দাবি হত্যা

পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে রহিম তার কৃষি জমিতে সেচ দেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি।

নেত্রকোণা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 March 2024, 08:49 AM
Updated : 31 March 2024, 08:49 AM

নেত্রকোণার দুর্গাপুর উপজেলায় গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ; স্বজনদের দাবি, হত্যার পর তাকে গাছের ডালে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

রোববার সকালে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের চন্দ্রকোণা গ্রামের আত্রাখালী নদীর পাড়ে লাশটি  পাওয়া যায় বলে নেত্রকোণা জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (দুর্গাপুর সার্কেল) মোহাম্মদ আক্কাস আলী জানান।

নিহত আবদুর রহিম (৩০) ওই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

নিহতের চাচা আহমদ আলী বলেন, “আমার ভাবি সকালে রহিমকে খুঁজতে বাড়ি থেকে বের হয়ে নদীর পাড়ের দিকে যান। এ সময় তিনি একটি গাছে রহিমের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান। পরে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। আমাদের ধারণা, রহিমকে হত্যার পর তার লাশ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।”

পরিবারের বরাতে সহকারী পুলিশ সুপার আক্কাস বলেন, শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রহিম তার কৃষি জমিতে সেচ দেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হন। এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। পরে রোববার সকালে রহিমকে খুঁজতে বের হন তার মা হালেমা খাতুন।

“খোঁজার পথে নদীর পাড়ের একটি গাছে ছেলে রহিমের ঝুলন্ত লাশ দেখে হালেমা খাতুন চিৎকার শুরু করেন। এ সময় তার ডাক চিৎকারে স্থানীয় লোকজন জড়ো হন। পরে তারা পুলিশকে খবর দেয়।”

এএসপি বলেন, লাশের সুরতহাল করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোণা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যার কথা বলছে।

সব দিক মাথায় রেখে তদন্ত শুরু হয়েছে; আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান পুলিশের এই সহকারী পুলিশ সুপার।