বরিশালে দুর্গা মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুর

কমিটি জানায়, রাত দেড়টা পর্যন্ত প্রতিমার কাজ করেছেন শিল্পীরা। সকালে এসে তারা দেখতে পান প্রতিমা ভাঙচুর হয়েছে।

বরিশাল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Sept 2022, 11:58 AM
Updated : 18 Sept 2022, 11:58 AM

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দুর্গা মন্দিরের নির্মাণাধীন প্রতিমা ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার গভীর রাতে উপজেলার কাশিপুর দুর্গা মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে বলে মন্দির কমিটির সভাপতি দিলীপ ঢালী জানিয়েছেন।

তবে মেহেন্দিগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম জানান, ভাঙচুর করা হয়নি, নির্মাণাধীন প্রতিমার হাত ও মাথা খুলে ফেলে নিচে পায়ের কাছে রাখা ছিল।

ওসি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে আরও জানান, খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ (ইউএনও) তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। খুলে ফেলা মাথা ও হাত লাগানো হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা এড়াতে মন্দিরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বর্তমানে মেহেন্দিগঞ্জে রাজনৈতিক অস্থিরতা চলছে; এক পক্ষ অপর পক্ষকে ফাঁসাতে এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে বলে ওসি ধারণা করছেন।

ইউএনও মো. নুরুন্নবী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সামনে দুর্গাপূজার জন্য নির্মাণাধীন প্রতিমার কয়েকটির মাথা খুলে ফেলা হয়েছে। কয়েকটির হাত ভেঙে ফেলা হয়েছে। সেগুলো মেরামত করা হচ্ছে।”

তিনি আরও বলেন, ঘটনা তদন্ত করে রহস্য উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। যারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মন্দির কমিটির সভাপতি দিলীপ ঢালী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “শনিবার রাত দেড়টা পর্যন্ত প্রতিমা নির্মাণের কাজ করেছে মৃৎ শিল্পীরা। মন্দিরের চারপাশে টিনের বেড়া রয়েছে। সেই বেড়া আটকে শিল্পীরা ঘুমাতে যান। সকালে এসে তারা দেখতে পান, প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়েছে।”

তিনি আরও জানান, মন্দিরের দুর্গা প্রতিমার ছয়টি হাত, অসুরের মাথা ও নাক, সিংহের দাঁত, লক্ষ্মীর দুই হাত, সরস্বতীর দুই হাত, কার্তিকের মাথা, গণেশের চার হাত ভাঙা ছিল। এ ছাড়া অসুর ও লক্ষ্মীর মাথার চুল খুলে ফেলে এলোমেলো করে নিচে ফেলা ছিল।

“এসব প্রতিমা মেরামতের কাজ চলছে।”

মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাদল কৃষ্ণ পাল এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে দ্রুত অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক