সংসদ নির্বাচন করতে মিঠাপুকুর উপজেলা চেয়ারম্যানের পদত্যাগ

রংপুর-৫ আসনে এবার আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির সদস্য এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক রাশেক রহমান।

রংপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Nov 2023, 10:18 AM
Updated : 28 Nov 2023, 10:18 AM

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচনে অংশ নিতে মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সরকার পদত্যাগ করেছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন রংপুর-৫ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে চান বলে জানিয়েছেন।

সোমবার রাতে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি।

মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহরিয়ার রহমান (ইউএনও) জানান, জাকির হোসেন সরকার পদত্যাগ করেছেন। তার পদটি শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর যটকমকে জাকির হোসেন বলেন, “পদত্যাগ করেছি। মিঠাপুকুরের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা ও মিঠাপুকুরের জনতার সাথে আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।”

বতর্মানে আওয়ামী লীগের জেলা কমিটির সদস্য জাকির হোসেন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৫ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। তবে দলীয় মনোনয়ন থেকে বাদ পড়েন তিনি।

রংপুর-৫ (মিঠাপুকুর) আসনে এবার আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির সদস্য এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক রাশেক রহমান।

এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান। তিনি এবার নির্বাচন করছেন না। ফলে বাবার আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন রাশেক।

বাবা এইচ এন আশিকুর রহমান এর ছেড়ে দেয়া আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন। তার বাবা এইচ এন আশিকুর রহমান কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী।

এ আসনে স্বতন্ত্রভাবে সংসদ নির্বাচন করতে চাওয়া জাকির হোসেন দুইবার দলীয় মনোয়নে মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। এ ছাড়া ৩৭ বছর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি।

জাকিরের সমর্থকরা জানান, জনপ্রিয় প্রার্থীদের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে গ্রিন সিগন্যাল রয়েছে। মিঠাপুকুরে জাকির হোসেনের জনপ্রিয়তা অন্য প্রার্থীর চেয়ে ‘বহুগুণ’ এগিয়ে। তাই তিনি নির্বাচনের মাঠে লড়াই করতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদ হতে পদত্যাগ করেছেন।