রাজশাহীতে নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে তরুণীর লাশ উদ্ধার

আটক ফুলবাবু নিহত সন্ধ্যা রানীর সৎ ভাই।

রাজশাহী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 March 2024, 05:50 PM
Updated : 27 March 2024, 05:50 PM

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় নির্মাণাধীন একটি বাড়ি থেকে এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। 

বুধবার দুপুরে উপজেলার গোগ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে গোদাগাড়ী থানার ওসি আবদুল মতিন জানান।   

নিহত তরুণীর নাম সন্ধ্যা রানী দাস (২০)। তিনি গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শীশা বাঁশপীর গ্রামের শ্রী হরিলাল দাসের মেয়ে। 

আটকরা হলেন- হরিলাল দাসের ছেলে ও সন্ধ্যা রানীর সৎ ভাই ফুলবাবু রবি দাস (২৫), তার স্ত্রী মিনতি রানী দাস (২৫) এবং গোদাগাড়ী উপজেলার লালপুকুর গ্রামের আওয়াল হোসেনের ছেলে আদিল আহমেদ পলক (১৯)।

পুলিশ জানায়, নির্মাণাধীন বাড়িটি এলাকার পিয়াস নামের এক ব্যক্তির। বাড়ির নিচতলা ও দোতলার কাজ চলছে। বাড়িটিতে এখনও কেউ থাকেন না। দোতলার নির্মাণাধীন বাথরুমের ভেতরে তরুণীর লাশ পড়ে ছিল। লাশের পাশে রক্ত গড়িয়ে গেছে। 

স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এর আগে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) দল সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। 

গোদাগাড়ী থানার ওসি দাবি করেন, ফুলবাবু, তার স্ত্রী ও বোন সন্ধ্যা রানী ভাড়া বাড়িতে থেকে শ্রমিকের কাজ করতেন। সন্ধ্যা রানীর সঙ্গে তাদের ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে সন্ধ্যা রানীকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে প্রথমে অচেতন করা হয়। পরে ছুরিকাঘাতে তাকে হত্যা করে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।