পদ্মা সেতুর কষ্টে তাদের জ্বালা কমে না: ওবায়দুল কাদের

ডিসেম্বরে বিএনপিকে হটিয়ে ঘরে ওঠাতে দলের নেতা-কর্মীদের প্রস্তুত থাকতে বলেছেন ওবায়দুল কাদের।

বরগুনা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Nov 2022, 02:36 PM
Updated : 16 Nov 2022, 02:36 PM

আওয়ামী লীগ সরকারের পদ্মা সেতুর সাফল্যে বিএনপি ঈর্ষান্বিত বলে মনে করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার বরগুনায় এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “অন্তর জ্বালায় মরে বিএনপি। পদ্মা সেতুর কষ্টে তাদের জ্বালা কমে না। বিএনপির ফখরুল বলেছিল পদ্মা সেতু ভেঙে পড়বে। সেই সেতু পার হয়েই বরিশালে সমাবেশ করল, একটুও লজ্জা করল না!

“আওয়ামী লীগকে কাপুরুষ বলে তারা তিরস্কার করে। আমরা নাকি তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিচ্ছি। আবার ভয় দেখায় ১০ ডিসেম্বর আমরা নাকি দেশ ছেড়ে পালাব। আর তারা স্বপ্ন দেখছে, ক্ষমতায় আসবে।”

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, “তারাও জিরো, তাদের সাথে যোগ হয়েছে জিরো। জিরোতে জিরোতে প্লাস করলেও জিরো হবে। তাদের স্বপ্ন পূরণ হবে না।”

“আওয়ামী লীগের সঙ্গে বিএনপি খেলতে চায়” মন্তব্য করে কাদের বলেন, “আমরাও বলি খেলা হবে। খেলা হবে আন্দোলনে; খেলা হবে নির্বাচনে; খেলা হবে ডিসেম্বরে। খেলা হবে বিএনপির দুঃশাসনের বিরুদ্ধে। খেলা হবে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে।”

বিএনপিকে আর ‘আগুন নিয়ে খেলতে দেওয়া হবে না’ বলেও তিনি হুঁশিয়ার করেন।

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির টাকার উৎসের কথা বলতে গিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, “দুবাই থেকে বিএনপির টাকা আসে। টাকা ওড়ে আকাশে, টাকা ওড়ে বাতাসে। আর কতদিন, টাকা ফুরিয়ে এসেছে। লাফালাফিও শেষ হবে।”

ডিসেম্বরে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, “ডিসেম্বর মাস মাঠে থাকতে হবে। বিএনপিকে হটিয়ে ঘরে ওঠাতে হবে।”

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির ব্যপারে তিনি বলেন, যোগ্য-ত্যাগী ও দুঃসময়ের পরীক্ষিত নেতারা কমিটিতে স্থান পাবে। চাঁদাবাজ, মাদকসেবী ও সন্ত্রাসীদের দলে স্থান হবে না।

তিনি বলেন, বরগুনায় এসে মনে হলো কর্মীর চেয়ে নেতা বেশি। পোস্টারে ছেয়ে গেছে বরগুনা। ছবি দেখে নেতা চেনা যায় না। এটা শেখ হাসিনার ম্যাজিক – ডিজিটাল বাংলাদেশ। বরগুনাসহ সারা বাংলাদেশে ডিজিটালের ছোঁয়া লেগেছে।

আট বছর পরে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়েছে।

বেলা ১১টায় বরগুনা সার্কিট হাউজ মাঠে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ।

প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. সিদ্দিকুর রহমান, সদস্য আনিসুর রহমান ও গোলাম কবীর রাব্বানী চিনু।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু। সম্পাদকীয় রিপোর্ট পেশ করেন জেলা সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর কবির।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক