শেরপুরে ক্লিনিকের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ

এ ঘটনায় সিভিল সার্জন বরাবর শিশুটির বাবা অভিযোগ দিয়েছেন।

শেরপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Dec 2023, 06:03 PM
Updated : 7 Dec 2023, 06:03 PM

শেরপুর সদরে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলায় এক নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সিভিল সার্জন বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন শিশুটির বাবা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের খরমপুরে সূর্যের হাসি ক্লিনিকের বিরুদ্ধে আনা এমন ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার কথা জানিয়েছেন শেরপুর সিভিল সার্জন অনুপম ভট্টাচার্য্য।

নবজাতকের বাবা মতিউর রহমান শ্রীবরদী উপজেলার গোপালখিলা গ্রামের সামছুল হকের ছেলে।

শিশুটির বাবা মতিউর রহমান জানান, ৪ ডিসেম্বর সকালে তার স্ত্রী মনিকা বেগমের প্রসব ব্যথা শুরু হলে সূর্যের হাসি ক্লিনিকে ভর্তি করান। ওইদিন দুপুর ১২টায় অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে একটি ছেলে সন্তান জন্ম দেন মনিকা। বুধবার সন্ধ্যায় বাচ্চার শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয়।

“পরে স্বজনরা নবজাতককে শেরপুর সদর হাসপাতালে নিতে চাইলে ক্লিনিকের ম্যানেজার এবং নার্স বাধা দেন। সে সময় তারা বলেন, ‘এখন ডাক্তার নেই, সকালে আসলে তার অনুমতি নিয়ে বাচ্চাকে অন্য হাসপাতালে নেওয়া যাবে।’

“বৃহস্পতিবার সকালে ডাক্তার আসার পর ছাড়পত্র নিয়ে শিশুটিকে সদর হাসপাতালে নিয়ে যান স্বজনরা। জরুরি বিভাগে নেওয়ার পর চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।”

তিনি আরও বলেন, “বাচ্চা ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মায়ের বুকের দুধ খায়নি। এ ব্যাপারে ওই ক্লিনিকে কোনো চিকিৎসা দেওয়া হয়নি। ডাক্তার বলেছেন ঠিক হয়ে যাবে। আমার বাচ্চাটা মারা গেল। আমি এ ঘটনার সঠিক বিচার চাই।”

সূর্যের হাসি ক্লিনিকের মেডিকেল কর্মকর্তা মঞ্জুরা আক্তার শিমু বলেন, “আমার ডিউটি সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। আজ সকালে শিশুটির অবস্থা খারাপ দেখে সদর হাসপাতালে রেফার্ড করি।

“ক্লিনিকে আরেকজন ডাক্তারের প্রয়োজন ছিল। কিন্তু কর্তৃপক্ষ তা করেনি। বুধবার রাতে আমাকে জানাতো তাহলে আমি ক্লিনিকে আসতাম। কিন্তু আমাকে জানানো হয়নি।”

অভিযোগ অস্বীকার করে সূর্যের হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, “রাতেই শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলা হয়েছিল কিন্তু তারা নিয়ে যায়নি।”

সিভিল সার্জন অনুপম বলেন, এ ঘটনায় চিকিৎসক মোবারক হোসেনকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি করা হবে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।