চিকিৎসা শেষে মুক্ত আকাশে ডানা মেললো ৮ শকুন

“এসব শকুন শীতকালে হিমালয় অঞ্চল থেকে আমাদের দেশে আসে। অনেক দূর পথ পাড়ি দিয়ে আসার সময় দুর্বল হয়ে পড়ে।”

দিনাজপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 April 2024, 01:01 PM
Updated : 4 April 2024, 01:01 PM

দিনাজপুরে বীরগঞ্জ জাতীয় উদ্যান সিংড়া শালবনে খাঁচায় আটকে রাখা আটটি শকুন অবমুক্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শকুনগুলো অবমুক্ত করা হয় বলে দিনাজপুরের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা বশিরুল আল মামুন জানান।

গত এক বছরের বিভিন্ন সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে উদ্ধার হওয়া নানা প্রজাতির শকুন উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয় দেশের একমাত্র এ শকুন পরিচর্যা কেন্দ্রে। সেখানে তৈরি বিশাল খাঁচায় রেখে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হয়।

বশিরুল আল মামুন বলেন, “এসব শকুন শীতকালে হিমালয় অঞ্চল থেকে আমাদের দেশে আসে। অনেক দূর পথ পাড়ি দিয়ে আসার সময় এরা দুর্বল হয়ে পড়ে।

“বিভিন্ন সময়ে এসব শকুন লোকালয়ে আটক হয়। পরে এদের উদ্ধার করে বনবিভাগের তত্ত্বাবধানে এখানে রাখা হয় এবং ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব ন্যাচার-আইইউসিএন চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ্ করে তোলে।”

২০১৪ সাল থেকে সিংড়া শালবন শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যা কেন্দ্রে প্রতি বছর উদ্ধার হওয়া শকুন চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ্ করে অবমুক্ত করা হয়। তখন থেকে এ পর্যন্ত ১৫৬টি শকুন অবমুক্ত করা হয়েছে বলে জানান এ বন কর্মকর্তা।

আইইউসিএন-এর সিনিয়র প্রোগ্রাম অ্যাসিস্ট্যান্ট কাজী জেনিফার আজমিরি বলে বলেন, গত বছর অবমুক্ত করা তিনটি শকুনের শরীরের স্যাটালাইট ট্র্যাকিং ডিভাইস লাগানো হয়েছিল, গতিবিধির উপর নজর রাখার জন্য। এতে দেখা গেছে, এই শকুন হিমালয় পার হয়ে চায়না মঙ্গলিয়ার কাছাকাছি চলে যায়। আবার হিমালয়ের দিকে ফিরে আসে।

এবারও তিনটি ডিভাইস লাগানো হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ভালো কিছু তথ্য পাবার আশা করছেন তারা।

শকুন অবমুক্ত’র সময় বন বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন ।