ফেনী জেলা পরিষদ নির্বাচনে সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হচ্ছেন

বৃহস্পতিবার বিকালে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী খায়রুল বাশার মজুমদার তপন রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

ফেনী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Sept 2022, 04:49 AM
Updated : 16 Sept 2022, 04:49 AM

ফেনী জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ের পথে রয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান ও আট সদস্য প্রার্থীরা।

বৃহস্পতিবার নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল। এদিন চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও সমর্থিত একক প্রার্থী ছাড়া অন্য কেউ মনোনয়নপত্র জমা দেয়নি।

ফলে বিধি অনুযায়ী, নির্বাচন কমিশন কর্তৃক মনোয়নপত্রের বৈধতা যাচাই-বাছাই চূড়ান্ত হলে প্রত্যক্ষ ভোট ছাড়াই তাদের বিজয়ী ঘোষণা করতে কোনো বাধা থাকবে না বলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন পাটোয়ারী জানান।

বৃহস্পতিবার বিকালে রির্টানিং কর্মকর্তা ফেনীর জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ-উল হাসানের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খায়রুল বাশার মজুমদার তপন।

একই সময়ে ছয়টি সদস্য ও দুটি সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন- ১ নম্বর ওয়ার্ডে ফুলগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম, ২ নম্বর ওয়ার্ডে ছাগলনাইয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ওমর ফারুক, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু তালেব জেকব, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি নুরুল আফছার আপন, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে দাগনভূঞা পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি খায়েজ আহাম্মদ, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে চরচান্দিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম মানিক, সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লায়লা জেসমিন বড়মনি এবং ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য শাহিদা আক্তার শেফালী।

জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা আবু সেলিম বলেন, পাঁচ বছর মেয়াদ পূর্ণ হওয়ায় গত ২৩ অগাস্ট দেশের ৬১ জেলা পরিষদ নির্বাচনে তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময় ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর।

আর ভোট গ্রহণের সময় ১৭ অক্টোবর নির্ধারিত রয়েছে বলে জানান তিনি।

বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণ পরবর্তী জেলা পরিষদ পুনারায় চালু হওয়ার পর ফেনীতে প্রত্যেকবারই সরকার দলীয় ও সমর্থিত চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে একক প্রার্থী থাকায় কোনোবারই ভোট গ্রহণের প্রয়োজন হয়নি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক