হনুমানটি ‘খাবারের খোঁজে’ লোকালয়ে এসে প্রাণ হারাল

স্থানীয় এক বিবাহ রেজিস্ট্রার কাজী শাবলের আঘাতে হনুমনটিকে হত্যা করেন বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। 

পিরোজপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Jan 2023, 06:23 PM
Updated : 16 Jan 2023, 06:23 PM

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে মাটিচাপা দেওয়া একটি হনুমানের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।   

সোমবার বিকালে উপজেলার বালিপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলাম কাজীর বসতবাড়ির পিছন থেকে মাটিচাপা দেওয়া হনুমানটির মরদেহ উদ্ধার করা হয় বলে জানান ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. এনামুল হক। 

স্থানীয় বিবাহ রেজিস্টার নুরুল ইসলাম কাজী লোহার শাবল দিয়ে আঘাত করে হনুমনটিকে হত্যা করে মাটিচাপা দিয়েছেন বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন।  

নাম প্রকাশ না করে স্থানীয় কয়েকজন জানান, বালিপাড়া ইউনিয়নের বিবাহ রেজিস্ট্রার মো. নুরুল ইসলামের বাড়িতে রোববার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে একটি দলছুট বন্য হনুমান তার বাড়ির সামনে এলে হনুমানটিকে তিনি লোহার শাবল দিয়ে আঘাত করেন। এতে হনুমানটি সেখানে মারা যায়। পরে নুরুল ইসলাম হনুমানটিকে তার ঘরের পিছনে মাটিচাপা দেন। 

পরে তারা খবরটি পিরোজপুর বনবিভাগ ও ইন্দুরকানী থানায় জানান।   

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. এনামুল হক জানান, খবর পেয়ে পুলিশ সোমবার বিকালে  নুরুল ইসলামের বসতবাড়ির পিছন থেকে মাটিচাপা দেওয়া হনুমানটির মরদেহ উদ্ধার করেছে। 

এ ব্যাপারে বন্যপ্রাণী আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান। 

অভিযোগের বিষয়ে নুরুল ইসলাম বলেন, হনুমানটি তিনি মারেননি। তার বাড়ির কাছে মৃত অবস্থায় দেখতে পেয়ে দুর্গন্ধ ছড়াবে ভেবে তিনি হনুমানটি মাটিচাপা দিয়েছেন। 

পিরোজপুর বনবিভাগের কর্মী আবু সালেহ বলেন, হনুমানটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে। 

“ধারণা করা হচ্ছে হনুমানটি খাবারের সন্ধানে বাসাবাড়িতে ঢুকেছিল। এ সময় তার পেটে ধারালো কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। হনুমানটির পেটের উপরে একটি বড় জখম রয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক