জৈন্তাপুরে ‘খাসি সম্প্রদায়ের’ জমিতে স্থাপিত ঘর অপসারণ

উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে সোমবার ঘরটি সরানো হয় বলে জৈন্তাপুরের ইউএনও জানান।

সিলেট প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 06:25 PM
Updated : 21 Nov 2022, 06:25 PM

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের নয়াবাড়ী গ্রামে সেই টং ঘরটি সরিয়ে নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন, যেটি খাসি সম্প্রদায় তাদের জমি বলে দাবি করছে।

সোমবার উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ঘরটি সরানো হয় বলে জৈন্তাপুরের ইউএনও আল বশিরুল ইসলাম জানান। 

ইএনও আল বশিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, টং ঘরটি সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। যেহেতু এই ভূমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে, তাই উভয় পক্ষের লোকজনকে সেখানে প্রবেশে নিষধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

“উভয় পক্ষের লোকজন একে অন্যের প্রতিবেশী হিসাবে যেভাবে বসবাস করে আসছেন সেভাবে চলাফেরা করবেন।”

তিনি বলেন, কাগজপত্র অনুযায়ী ভূমির জরিপ কাজ সম্পাদন করে সীমানা চিহ্নিত করা হবে। ভূমি চিহ্নিত না হওয়া পর্যন্ত ভূমি উভয় পক্ষের লোকজনদের প্রবেশে নিষধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। 

সোমবার দুপুর ১২টায় ঘরটি অপসারণের সময় জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপামনি দেবী, থানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বশির উদ্দিন, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি নূরুল ইসলাম ও ইউপির সদস্যসহ উভয় পক্ষের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। 

এর আগে খাসি সম্প্রদায়ের লোকজন ভূমি দখলের অভিযোগ তুলে বুধবার থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। 

জৈন্তাপুর মডেল থানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমদ বলেন, এ ঘটনায় বুধবার থানায় মামলা হয়েছে। বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত চলছে।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, বুধবার দুপুরে উপজেলার নিজপাট মৌজার নয়াবাড়ি গ্রামে খাসিয়া সম্প্রদায়ের খোকন রম্বাই-এর জমিতে জোর করে দখল চালায় আব্দুস সামাদ নামের এক ব্যক্তি। এ সময় তার সঙ্গে ৪০-৫০ জন নারী-পুরুষের একটি সংঘবদ্ধ দল ছিল। 

তাদের বাধা দিলে তারা নারীদের দিয়ে হামলায় চালায় বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।  

Also Read: জৈন্তাপুরে খাসি সম্প্রদায়ের ভূমি দখলের অভিযোগ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক