মোবাইলে প্রবাসীর সঙ্গে স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন, কাজী-কনের বাবা কারাগারে

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জানান, পরিপূর্ণ বয়সের আগে কোনো বিয়ে নয়।

মাদারীপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Feb 2024, 03:08 AM
Updated : 18 Feb 2024, 03:08 AM

মাদারীপুরে ইতালি প্রবাসী ছেলের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর বিয়ের আয়োজন করায় তিনজনকে কারাগারে পাঠিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার কুলপদ্বী এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিয়ের কাজী, বরের চাচা ও কনের বাবাকে এক মাস করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে জানান ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক   সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. সাইফুল ইসলাম।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বরের চাচা কালকিনি উপজেলার ভাটাবালী গ্রামের জয়নাল হাওলাদার (৪৫), কনের বাবা মাদারীপুর পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সৈয়দারবালী এলাকার মো. ওসমান শেখ (৪৫) এবং বিয়ের কাজী কুলপদ্বী এলাকার ফারুক (৫০)।

ভ্রাম্যমাণ আদালত জানায়, বুধবার সকালে কাগজপত্রে বয়স বাড়িয়ে দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে মহিলা বিষয়ক কার্যালয়ের কর্মকর্তারা প্রশাসনকে অবহিত করে। 

অভিযান চালিয়ে বিষয়টির সত্যতা মেলে এবং ঘটনার সত্যতা স্বীকার করায় তাদের সাজা দেওয়া হয়েছে। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানান ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সাইফুল।

তিনি আরও বলেন, ৩০ সেপ্টেম্বর সদর উপজেলাকে বাল্য বিবাহমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। দেড় বছরে উপজেলায় ৭৩টি বাল্য বিয়ে বন্ধ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহমুদা আক্তার কনা জানান, পরিপূর্ণ বয়সের আগে কোনো বিয়ে নয়। এই কাজ যারা করবে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।

[প্রতিবেদনটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল ০৪ অক্টোবর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক]