বাঁচার শক্তি ফিরে পেয়েছি: অধ্যক্ষ স্বপন কুমার

‘সবার সমর্থনে আমি আবার আমার সেই প্রাণের প্রতিষ্ঠানে ফিরে আসতে পেরেছি।’

নড়াইল প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 August 2022, 11:19 AM
Updated : 4 August 2022, 11:19 AM

ফেইসবুকে ‘ধর্ম অবমাননার’ পোস্ট ঘিরে লাঞ্ছিত ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাস ‘যন্ত্রণা ভুলে কাজ শুরু করেছেন; শিক্ষার্থীদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে গ্রহণ করেছেন পরিকল্পনা’।

বৃহস্পতিবার সারাদিন কলেজে থেকে শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করে বিভিন্ন পরিকল্পনা করেন বলে তিনি নিজে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান।

স্বপন কুমার বলেন, “সেদিনের ঘটনায় আমি মানসিকভাবে প্রচণ্ড হতাশ হয়ে পড়েছিলাম। জীবন-মৃত্যুর মাঝামাঝি ছিলাম। কিন্তু যখন দেখলাম সারাদেশের বিবেকবান শিক্ষিত সমাজ আমার সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন, বিভিন্ন জায়গায় আমার জন্য রাস্তায় নেমেছেন, তখন যন্ত্রণা ভুলে আবার বাঁচার শক্তি ফিরে পেয়েছি।”

গত ১৮ জুন নড়াইলের মির্জাপুর ইউনাইটেড ডিগ্রি কলেজের এক ছাত্রের ফেইসবুকে প্রকাশিত পোস্টে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ উঠলে উত্তেজনা দেখা দেয়। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ওই ছাত্রের পক্ষ নিয়েছেন এমন খবর রটানো হলে পুলিশের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ বাধে। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের গলায় জুতার মালা পরিয়ে দেয় কয়েকজন। তিনটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

ওই দিনই কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ঘটনার পর থেকে বাড়ির বাইরে ছিলেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ। এক মাসের বেশি সময় পরে গত ২৪ জুলাই উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষে পাঠদান শুরুর মধ্য দিয়ে কলেজ চালু হলেও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কলেজে যোগ দেন বুধবার দুপুরে। সে সময় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা ফুলের মালায় বরণ করে নেন তাকে।

স্বপন কুমার বলেন, “বেশ কিছুদিন কলেজ বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় ঘাটতি হয়েছে। এ বিষয়ে করণীয় সম্পর্কে শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করে বিভিন্ন পরিকল্পনা করেছি। সহকর্মীরা অত্যন্ত আন্তরিকভাবে আমাকে সহযোগিতা করেছেন। আশা করছি সবকিছু ভালভাবেই চলবে।”

সেদিনের ঘটনায় তিনি ‘প্রচণ্ড হতাশ’ হলেও এখন আবার উজ্জীবিত।

স্বপন বলেন, “আমাকে একদিন যেখানে গলায় জুতার মালা দেওয়া হয়েছিল, সবার সমর্থনে আমি আবার আমার সেই প্রাণের প্রতিষ্ঠানে ফিরে আসতে পেরেছি।

“দেশের বিভিন্ন স্থানে অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ যেভাবে দাঁড়িয়ে আমাকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন, আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।”

কলেজ থেকে সামান্য দূরে বড়কুলা গ্রামে তার বাড়ি।

স্বপন বলেন, “৩৫ বছর যাবত কলেজ এলাকায় আমার বিচরণ। এমন একটি দিন ছিল না, যখন আমি কলেজ এলাকার বাজারে যাইনি। কিন্তু ওই ঘটনার পর থেকে আমি এ এলাকায় আসতে পারিনি। এটা যে আমার জন্য কত বড় কষ্টের ছিল তা বলে বোঝাতে পারব না।

“ঘটনার পর থেকে বন্ধুবান্ধব-আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে থেকেছি। মাঝেমধ্যে মাত্র ১০ মিনিটের জন্য বাড়িতে গিয়েছিলাম। আজ আবার আমার প্রাণের ক্যাম্পাসে ফিরতে পেরে অনেক ভাল লাগছে।”

শিক্ষার্থীদের বিষয়ে তিনি বলেন, “শিক্ষার্থীরা আমার সন্তানের মত। তাদের সঙ্গে কথা বলব। এই কয় দিনে তাদের যে ঘাটতি হয়েছে তা পুষিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করব।”

এলাকাবাসী ও অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে আলোচনা করে কলেজকে সিসি ক্যামেরায় আওতায় আনার উদ্যোগ নেবেন বলে জানান তিনি।

সেদিনের ঘটনা সম্পর্কে তিনি বলেন, “ব্যক্তি স্বপন কুমার বিশ্বাসের থেকে একটি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষের পদটি বেশি অপমানিত হয়েছে। যাই হোক, সবকিছু ভুলে সবাইকে নিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে চাই।

“আমাদের এমপি মহোদয় তার গাড়িতে করে আমাকে কলেজে নিয়ে এসেছেন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাগণ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। আশা করি সামনে আর কোনো সমস্যা হবে না।”

নড়াইল-১ আসনের সংসদ সদস্য কবিরুল হক মুক্তি এ বিষয়ে সক্রিয় রয়েছেন।

তিনি বলেন, “সেদিন কলেজ ক্যাম্পাসে অধ্যক্ষের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছিল তা আমরা মেনে নিতে পারিনি। আমরা সবাই মিলে অধ্যক্ষকে সম্মানের সঙ্গে আবার ফিরিয়ে এনেছি। এতে নড়াইলের মানুষের অসাম্প্রদায়িক চেতনার হারানো গৌরব কিছুটা হলেও ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে।

“সুষ্ঠু তদন্ত করে এ ঘটনার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এখন থেকে সবাই মিলেমিশে এখানে থাকবে। আশা করছি এখানে আর কোনো সমস্যা হবে না।”

ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করাসহ সহিংসতার মামলায় এখন পর্যন্ত নয়জনকে গ্রেপ্তার করেছেন পুলিশ।

তাদের মধ্যে ওই কলেজের চার ছাত্র আছেন। তারা সবাই কারাগারে। ফেইসবুকে পোস্ট দিয়ে ‘ধর্ম অবমাননা’ করার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত কলেজছাত্র রাহুল রায় দেবও কারাগারে আছেন।

নড়াইল থানার ওসি মাহমুদুর রহমান বলেন, পুলিশ ঘটনার তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়ুন:

Also Read: দেড় মাস পর ফুলের মালা নিয়ে কলেজে ফিরলেন নড়াইলের অধ্যক্ষ

Also Read: নড়াইলে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত: শিক্ষার্থীর ছাত্রত্ব বাতিল, শিক্ষককে ‘শোকজ’

Also Read: অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত: নড়াইলের সেই কলেজ খুলছে এক মাস পর

Also Read: অধ্যক্ষ লাঞ্ছিতের প্রতিবেদনের পর নড়াইল সদরের ওসি প্রত্যাহার

Also Read: পুলিশের সামনে শিক্ষকের গলায় জুতার মালা: চলছে প্রতিবাদ

Also Read: নূপুর শর্মাকে নিয়ে ফেইসবুকে পোস্ট, নড়াইলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ

Also Read: হেনস্তার শিকার সেই শিক্ষক এখনও ভয়ে, ফিরছেন না বাড়িতে

Also Read: নড়াইলে অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত: মির্জাপুর ফাঁড়ির প্রধানও প্রত্যাহার

Also Read: নড়াইলে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত: আরেকজন গ্রেপ্তার

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক