নরসিংদীতে ধর্ষণ মামলায় পুলিশ সদস্য কারাগারে

একদিন আগে ওই তরুণীর বাড়ি থেকে কনস্টেবলকে ইমনকে আটক করে পুলিশ।

নরসিংদী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Feb 2024, 05:01 PM
Updated : 12 Feb 2024, 05:01 PM

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় এক পুলিশ কনস্টেবলকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

রোববার রাতে তাকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার আদালতে তোলা হলে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মেহেদী হাসান এ আদেশ দেন বলে জানান রায়পুরা থানার ওসি সাফায়েত হোসেন পলাশ।

গ্রেপ্তার ইমন (২৮) কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম থানায় কর্মরত আছেন এবং রায়পুরা উপজেলার বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর নগর গ্রামের বাসিন্দা।

রোববার রাত ১টার দিকে ওই তরুণীর বাড়ি থেকে ইমনকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনায় সোমবার সকালে ভুক্তভোগী নারী (২২) থানায় মামলা করেন।

মামলার বরাতে ওসি সাফায়েত বলেন, “প্রায় ১৮ মাস আগে রায়পুরার হাজারীবাড়ী এলাকার এক তরুণীর সঙ্গে ফেইসবুকের মাধ্যমে ইমনের পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

“পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই তরুণীকে কিশোরগঞ্জের ভৈরবসহ বিভিন্ন এলাকায় নিয়ে একাধিকার ধর্ষণ করেন ইমন। রোববার ওই তরুণীর বাসায় গিয়ে আবারও শারীরিক সম্পর্ক করতে চাইলে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয়। এতে ইমন অস্বীকৃতি জানালে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।”

এক পর্যায়ে এলাকাবাসী তাকে আটক করে থানায় খবর দেয় বলে জানান ওসি।

ভুক্তভোগীর ওই তরুণীর শারীরিক পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে; রিপোর্ট পেলে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।