অবৈধ সম্পদ: সিরাজগঞ্জের আওয়ামী লীগ নেতা ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

উজ্জ্বল সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর ইমামের ব্যক্তিগত সহকারী ছিলেন।

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 March 2024, 04:03 PM
Updated : 27 March 2024, 04:03 PM

জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদের অভিযোগে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল এবং তার স্ত্রী মোরশেদা মরিয়মের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুদক।

বুধবার দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক পাবনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক খায়রুল হক বাদী হয়ে মামলা দুটি করেন।

পরে বিকালে সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মীর আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল ২০১৯ সালের ২৭ জানুয়ারি সিরাজগঞ্জ-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর ইমামের ব্যক্তিগত সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে যোগদান করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বলের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ প্রাথমিক অনুসন্ধানে প্রমাণিত হওয়ায় দুদক প্রধান কার্যালয় তাকে সম্পদ বিবরণী দাখিলের নির্দেশ দেয়। ১৭ মে পাবনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালকের কাছে সম্পদের বিবরণী দাখিল করেন তিনি।

বিবরণীতে মোট ১৮ লাখ ১০ হাজার টাকা মূল্যের স্থাবর এবং ১ কোটি ৪৮ লাখ ১৯ হাজার ৭৭৬ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদের তথ্য দেওয়া হয়। এরপর দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে ২ লাখ ৪৯ হাজার ১৮৩ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করার প্রমাণ পাওয়া যায় বলে দুদকের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

দুদক বলছে, এ ছাড়া আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল ৪৫ লাখ ৮৩ হাজার ৮৯৫ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ ভোগদখল করছেন।

অপরদিকে, মোরশেদা মরিয়ম একজন গৃহিনী। তার নিজস্ব আয় নেই। উজ্জ্বল সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী হওয়ার পর স্ত্রীর নামে অধিকাংশ সম্পদ অর্জন করেন। কমিশনে দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে মোরশেদা মরিয়ম ১২ লাখ ৯৭ হাজার ১৯০ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন এবং ১ কোটি ৩৯ লাখ ৫৩ হাজার ২৭৮ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ ভোগদখল করছেন।

স্বামী-স্ত্রী দুজনের বিরুদ্ধে আলাদা মামলা হয়েছে বলে জানায় দুদক। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মীর আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল বলেন, “দুদকে সঠিক হিসাব বিবরণী দাখিল করার পরও আমাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এটি তদন্তে মিথ্যা প্রমাণিত হবে।”