প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় হত্যা, প্রতিবেশীর মৃত্যুদণ্ড

প্রেমেরে প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় দশ বছর আগে প্রতিবেশী নারীকে কুপিয়ে হত্যা করেন দণ্ডিত মফিজুল ইসলাম।

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 July 2022, 02:49 PM
Updated : 27 July 2022, 02:49 PM

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় প্রতিবেশী নারীকে হত্যার ১০ বছর আগের একটি মামলায় এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড হয়েছে।

বুধবার জেলা ও দায়রা জজ মামুনুর রশিদ আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শেখর কুমার রায়।

মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি আসামিকে ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ডও দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত মফিজুল ইসলাম (বর্তমান বয়স ৩৩ বছর) ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার বলিদ্বারা গ্রামের রিয়াজ আলীর ছেলে।

মামলার নথির বরাতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শেখর কুমার রায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, রাণীশংকৈল উপজেলার বলিদ্বারা গ্রামের দুলাল হোসেনের স্ত্রী জোৎসা বেগমকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন প্রতিবেশী মফিজুল ইসলাম। প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় ২০১২ সালের ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় দুলাল হোসেনের বাড়িতে গিয়ে জোৎসা বেগমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেন মফিজুল। এতে রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই জোৎসার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ওই দিনই দুলাল হোসেন বাদী হয়ে মফিজুল ইসলামকে আসামি করে রাণীশংকৈল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

রাণীশংকৈল থানার সে সময়ের এসআই রেজাউল আলম মামলাটি তদন্ত করে ২০১৩ সালের ৩১ মে অভিযোগপত্র দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শেখর কুমার রায় আদালতের রায়ে সন্তেুাষ্টি প্রকাশ করে বলেন, “নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা ও নারীর প্রতি যেকোনো ধরনের সহিংসতা বন্ধে এটি একটি যুগান্তকারী রায়।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক