দুলাল ফকিরের জালে এবার ২৫ লাখ টাকার লাক্ষা মাছ

১৪ দিন আগে এই ইউপি সদস্যের ট্রলারে ৯২টি লাক্ষা মাছ ধরা পড়েছিল; যা ২০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল।

পিরোজপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 March 2024, 01:02 PM
Updated : 30 March 2024, 01:02 PM

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীর দুলাল ফকিরের জালে আবারও ধরা পড়েছে ১২০টি লাক্ষা মাছ; যা ২৫ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

শনিবার সকালে মাছগুলো পাড়েরহাট মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের আড়তে বিক্রি হয় বলে জানান মৎস্য আড়তদার মো. ফেরদৌস হোসেন।

১৬ মার্চ এই দুলাল ফকিরের জালে ধরা পড়ে ৯২টি লাক্ষা মাছ। সেগুলো ২০ লাখ টাকায় বিক্রি করেন তিনি। এর ১৪ দিনের মাথায় আবারও ২৫ লাখ টাকার লাক্ষা মাছ বিক্রি করেন ওই জেলে।

ইন্দুরকানী উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের পূর্ব চরবলেশ্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. দুলাল ফকির। তার মালিকানাধীন এফবি আবদুল্লাহ ও এফবি আল ইমরান ট্রলার বঙ্গোপসাগর যায় মাছ ধরতে। তার দুটি ট্রলারে এবার অন্যান্য মাছের সঙ্গে ১২০টি লাক্ষা মাছ ধরা পড়ে।

ট্রলারের জেলেরা বলেন, ১৪ দিন আগে তারা জাল, বরফ ও রসদ বোঝাই করে সাগরে যান। ঈদের আগে এত বেশি মাছ পাওয়ায় সবাই খুশি। এবার পরিবার-পরিজন নিয়ে ভালোভাবে ঈদ করতে পারবেন বলে তারা প্রত্যাশা করছেন।

এফবি আবদুল্লাহ ও এফবি আল ইমরান ট্রলারের মালিক দুলাল ফকির বলেন, এর আগে কয়েকবার সাগরে ট্রলার পাঠিয়ে তার লোকসান হয়েছে। আগেরবার ২০ লাখ এবং এবার ২৫ লাখ টাকার মাছ বিক্রি হওয়ায় তিনি আগের ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারবেন।

পাড়েরহাট মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের আড়তদার মো. মোহসিন বলেন, “প্রতিটি লাক্ষা মাছের ওজন তিন থেকে সাত কেজি। অন্যান্য মাছের তুলনায় লাক্ষা মাছের চাহিদা এবং দাম বেশি হয়। ১২০টি মাছ মোট ২৫ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে।”