ঝালকাঠিতে ‘মায়ের গলায় চাকু ধরে মেয়েকে ধর্ষণ’, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

‘গলায় চাকু ঠেকিয়ে মায়ের হাত-পা বেঁধে মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়।’

ঝালকাঠি প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Nov 2022, 02:40 PM
Updated : 16 Nov 2022, 02:40 PM

ঝালকাঠির রাজাপুরে মায়ের গলায় চাকু ধরে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলার আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার রাতে থানায় মামলা করলে ওই রাতেই প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে রাজাপুর থানা ওসি পুলক চন্দ্র রায় জানান।

গ্রেপ্তার মো. আলী হোসেন মোল্লা (২৭) উপজেলার ছোট কৈবর্তখালী গ্রামের প্রয়াত আনেচ মোল্লার ছেলে।

অপর আসামি উপজেলার বড় কৈবর্তখালী গ্রামের মো. শাহ আলম মীরার ছেলে মো. ফুহাত মীর (২২) পলাতক রয়েছেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, দশম শ্রেণির ছাত্রীটি স্কুল যাওয়া-আসার পথে একই এলাকার আলী হোসেন নামের এক যুবক উত্ত্যক্ত করতেন। তার সহযোগী ফুহাত মীরা। ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এর পর কয়েকদিন ওই এলাকায় বিদ্যুৎহীন ছিল। এ অবস্থায় গত ২৮ অক্টোবর গভীর রাতে আলী ও ফুহাত জানালা ভেঙে ছাত্রীটির ঘরে প্রবেশ করেন। এ সময় গলায় ধারালো চাকু ঠেকিয়ে মায়ের হাত-পা বেঁধে আলী হোসেন মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। ফুহাত ছিলেন ধর্ষণে সহায়তাকারী।

পরে টর্চ লাইটের আলোতে নিজেদের চেহারা দেখিয়ে ঘটনাটি প্রকাশ না করতে মা-মেয়েকে হুমকি দিয়ে চলে যান আলী-ফুহাত।

সকালে কাউকে কিছু না জানিয়ে আলী ও ফুহাতের ভয়ে এলাকা থেকে পালিয়ে যান মা-মেয়ে। পরে পুলিশের সহায়তায় তারা এলাকায় আসেন। মঙ্গলবার রাতে মেয়েটির মা বাদী হয়ে ওই দুজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ওসি পুলক চন্দ্র রায় বলেন, প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করে বুধবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মেয়েটির জবানবন্দী রেকর্ড করতে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক