খালেদাকে বিদেশে পাঠানোর দাবি, আওয়ামী লীগ নেতাকে ‘শোকজ’

“আমি রাজনৈতিক কারণে লিখেছি, এখানে দোষের কিছু দেখছি না।”

পটুয়াখালী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Feb 2024, 08:23 PM
Updated : 21 Feb 2024, 08:23 PM

চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর দাবি জানিয়ে ‘কারণ দর্শাও’ নোটিসের মুখে পড়েছেন পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার।

সোমবার সকালে তাকে ‘শোকজ’ নোটিস পাঠানো হয়েছে বলে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান জানিয়েছেন।

বাউফল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোতালেব গত শনিবার রাতে তার ফেইসবুক পেইজে লেখেন, ‘রাজনৈতিক কারণে আইন পরিবর্তন করে হলেও বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ করে দেওয়া হউক।’

তার সেই পোস্ট মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে। বিএনপি নেতাকর্মীরা তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রশংসা করেন। বিষয়টি নিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি হলে অস্বস্তিতে পড়ে যায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মান্নান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আবদুল মোতালেব দলের দায়িত্বশীল পদে থেকে এ ধরনের মন্তব‌্য করতে পারেন না। তাই তাকে শোকজ করা হয়েছে।”

মোতালেবের এমন বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে তাকে বহিষ্কারের দাবি তুলেছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা। 

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি হারুন অর রশিদ, উপজেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইব্রাহিম খলিল ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামসুল কবির নিশাতসহ অনেকে মোতালেবের ওই বক্তব্যকে ‘সংগঠনবিরোধী’ আখ্যা দিয়েছেন।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে মোতালেব বলেন, “শেখ হাসিনা মানবতার মা, তিনি খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে বাসায় থাকার সুযোগ দিয়েছেন। শেখ হাসিনা যে মানবতার মা, চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠালে তা আরও একবার প্রমাণিত হবে।

“আমি রাজনৈতিক কারণে লিখেছি, এখানে দোষের কিছু দেখছি না।”

দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া সরকারের নির্বাহী আদেশে সাময়িক মুক্ত আছেন। হাসপাতালে ভর্তি এই রাজনীতিবিদকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর আবেদন করেছিল তার পরিবার, ততে তাতে সরকারের সায় মেলেনি।

[প্রতিবেদনটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল ০২ অক্টোবর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক]