‘উন্নয়নের নৌকা’ এখন শ্রীলঙ্কার পথে: জিএম কাদের

"দেশের স্বার্থের কথা বললেই সরকারের কিছু নেতা ষড়যন্ত্র খোঁজে," বলছিলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 August 2022, 04:34 PM
Updated : 12 August 2022, 04:34 PM

ইউরোপ, আমেরিকা ও সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে দেওয়া ‘উন্নয়নের নৌকা এখন শ্রীলঙ্কার পথে’ বলে মন্তব্য করেছেন জিএম কাদের।

শুক্রবার মিরপুরের চিড়িয়াখানা রোড়ের ঈদগাহ মাঠে মিরপুর ও শাহ আলী থানা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধী দলীয় উপনেতা এমন মন্তব্য করেন।

তার ভাষ্য, ‘‘ইউরোপ, আমেরিকা আর সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্য ছেড়ে দেওয়া উন্নয়নের নৌকার এখন শ্রীলঙ্কার পথে। দেশের স্বার্থের কথা বললেই সরকারের কিছু নেতা ষড়যন্ত্র খোঁজে।

‘‘আমি যখন বলছি, দেশ শ্রীলঙ্কার মত ব্যর্থ হতে চলেছে। তখন আমাদের মূর্খ বলেছে।”

জিএম কাদের বলেন, ‘‘এখন আমাদের প্রশ্ন দেশে লোডশেডিং কেন? ডলারের দাম এত বেড়েছে কেন? জ্বালানি তেলের দাম এত বেড়েছে কেন? সারাদিন বিশ্বব্যাংক আর আইএমএফকে গালাগাল দিয়ে এখন ঋণের জন্য তাদের পিছনে ঘুরছে কেন?”

তার অভিযোগ, ‘‘বিদ্যুৎ উৎপাদন করেনি এমন প্রতিষ্ঠানকে বছরে ২৪ হাজার কোটি টাকা ক্যাপাসিটি চার্জ দেওয়া হয়েছে লুটপাটের জন্য।”

জ্বালানি খাতের দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘‘দেশের মানুষ জানতে চায়, প্রতিবছর কত হাজার কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে জ্বালানি খাতে। কারা এই দুর্নীতির সাথে জড়িত? দুর্নীতির সাথে জড়িতদের তালিকা প্রকাশ করতে হবে। বিচারের মুখোমুখি দুর্নীতিবাজদেরকে করতে হবে।”

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর সমালোচনা করে জাতীয় পার্টির এই নেতা বলেন, ‘‘সরকার বলছে জ্বালানি তেলের মূল্যে ভুর্তুকি দিচ্ছে। আসলে কোনো ভর্তুকি দেয়নি সরকার।

‘‘কয়েক বছরে ৪২ হাজার কোটি টাকার মুনাফা করেছে তারা। সেই টাকা দিয়েই তেলের মূল্য সমন্বয় করলে তেলের দাম বাড়াতে হত না। তেলের দাম বাড়িয়ে মানুষকে মৃত্যুর যন্ত্রণার মুখে ঠেলে দিয়েছে তারা।“

জ্বালানি তেলের দাম বাড়াতে সরকার দেশের মানুষের ‘প্রতারণা’ করেছে বলেও অভিযোগ তার।

দেশ থেকে হাজার হাজার কোটি পাচার হচ্ছে অভিযোগ করে এ বিষয়ে পাচারকারীদের তালিকা প্রকাশের দাবিও জানান তিনি।

দলের ভাইস চেয়ারম্যান ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আলম পাঠানের সভাপতিত্বে সম্মেলনে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মজিবুল হক চুন্নু, কো চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, মোস্তফা আল মাহমুদ ও আতিকুর রহমান আতিক বক্তব্য রাখেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক