জিয়াকে ‘পাকিস্তানের চর’ বলার অপচেষ্টা রুখতে হবে: ফখরুল

“একটা পরিকল্পিতভাবে চক্রান্ত চলছে জিয়াউর রহমানের নাম মুছে ফেলার জন্য”, বলেন তিনি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 March 2024, 02:28 PM
Updated : 31 March 2024, 02:28 PM

জিয়াউর রহমানকে ‘পাকিস্তানের চর’ বলার ‘অপচেষ্টা’র বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতাকে ‘ক্ষণজন্মা মহামানব’ আখ্যা দিয়ে তিনি জিয়াউর রহমানের ‘অবদানগুলো’ তুলে ধরার ওপরও জোর দিয়েছেন।

রোববার রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেনে লেডিস ক্লাবে ইফতারপূর্ব এক আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের আয়োজিত এই ইফতারে ফখরুল বলেন, “একটা পরিকল্পিতভাবে চক্রান্ত চলছে জিয়াউর রহমানের নাম মুছে ফেলার জন্য। এই চক্রান্ত হচ্ছে মূলত জিয়াউর রহমান সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে ভুল ধারণা দিয়ে দেওয়া।”

১৯৭১ সালের ২৭ মার্চ চট্টগ্রামের কালুরঘাট বেতারকেন্দ্র থেকে বঙ্গবন্ধুর পক্ষে জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার যে ঘোষণাপত্র পাঠ করেছিলেন, সেটিকে ‘স্বাধীনতার ঘোষণা’ বলে দাবি করেন বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, “যার ঘোষণার মধ্য দিয়ে দেশ স্বাধীন হল, যিনি রণাঙ্গনে যুদ্ধ করলেন, সেই মানুষটিকে এখন পাকিস্তানের অনুচর হিসেবে বলার অপচেষ্টা করা… এটার বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে।

“সেই দাঁড়ানোর জন্য রাজনৈতিক দল আছে, বিএনপি আছে। আমরা তো কথা বলছি। কিন্তু জিয়াউর রহমানের ফাউন্ডেশনের দায়িত্ব হবে তথ্যভিত্তিক উপাত্ত তুলে ধরে এগুলোকে কাউন্টার করা এবং জিয়াউর রহমানের অবদানগুলো বলা।”

জিয়াউর রহমানের কাজের বিভিন্ন দিক নিয়ে গবেষণার মাধ্যমে পুস্তিকা, বই তৈরি করে নতুন প্রজন্মের কাছে ছড়িয়ে দেওয়ার পরামর্শও দেন ফখরুল।

এই আয়োজনে ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন।

ফাউন্ডেশনের সদস্য মীর হেলালের সঞ্চালনায় আলোচনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, পেশাজীবী নেতা সদরুল আমিন, মোর্শেদ হাসান খান, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ফরহাদ হালিম ডোনারও বক্তব্য রাখেন।