জাতীয় পার্টি নেবে ‘গণতন্ত্রের প্রশিক্ষণ’

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 August 2022, 05:33 PM
Updated : 7 August 2022, 05:33 PM

সামরিক শাসক এইচ এম এরশাদের গড়া দল জাতীয় পার্টির নেতৃত্ব উন্নয়ন এবং দলের অভ্যন্তরে গণতন্ত্র চর্চার জন্য প্রশিক্ষণ দেবে যুক্তরাষ্ট্রৈর বেসরকারি সংস্থা ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল।

সংসদে বিরোধীদলীয় প্রধান দলটির সঙ্গে রোববার ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের এই বিষয়ক সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

ঢাকায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে চুক্তিতে সই করেন দলের মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু এবং ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের চিফ অব পার্টি ডানা এম ওল্ডস।

চুন্নু বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল দলের কর্মীদের নির্বাচনি কার্যক্রম পরিচালনা, দলের অভ্যন্তরে গণতন্ত্রে চর্চা, এসব নিয়ে প্রশিক্ষণ দেবে।”

জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান আহসান আদেলুর রহমান এ কাজের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করবেন বলে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সমঝোতা স্মারক সইয়ের সময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের, জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, কাজী ফিরোজ রশীদ, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সালমা ইসলাম, ইউএসএআইডির ডিরেক্টর ক্রিস্টিন এম ওয়ালস, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যালের ডেপুটি চিফ অব পার্টি লেজলী রিচার্ডস, ইউএসএআইডির পলিটিক্যাল অ্যাডভাইজার লুবাইন চৌধুরী মাসুম উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশে গণতন্ত্র বন্দি থাকা অবস্থায় ১৯৮৬ সালের ১ জানুয়ারি জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠা, এরশাদের হাতে। তৎকালীন সেনাপ্রধান এরশাদ তার চার বছর আগে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করেন, যা অবৈধ ছিল বলে পরে আদালতের রায়ে উঠে এসেছে।

১৯৯০ সালে গণআন্দোলনে এরশাদ ক্ষমতা হারানোর পরও চেয়ারম্যান হিসেবে হিসেবে দলটির কর্তৃত্ব তার হাতেই ছিল ২০১৯ সালে তিনি মারা যাওয়া পর্যন্ত।

জাতীয় পার্টি নিজের ইচ্ছেমতো চালাতে দেখা গেছে এরশাদকে। দলের গুরুত্বপূর্ণ পদ মহাসচিব ও তিনি বদলাতেন যখন-তখন। সেজন্য দেখা যায়, তিন দশকে ডজনখানেক মহাসচিব পেয়েছে জাতীয় পার্টি। আবার এই মহাসচিবদের তিনজন নতুন জাতীয় পার্টিও গঠন করেন।

এরশাদর মৃত্যুর পর এখন তার ভাই জি এম কাদের জাতীয় পার্টির নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক