প্রতিবাদ নয়, এখন প্রতিরোধ: ছাত্রলীগ সভাপতি

“আর আমরা শুধু প্রতিবাদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকব না। আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুলব এবং তাদের চূড়ান্ত পরাজয় নিশ্চিত করেই ঘরে ফিরব”, বলেন সাদ্দাম।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Oct 2023, 11:19 AM
Updated : 29 Oct 2023, 11:19 AM

বিএনপি ও জামায়াত দেশে ‘সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের পরিস্থিতি’ তৈরি করলে কঠোরভাবে প্রতিরোধের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম হোসেন।

রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে বিক্ষোভ-সমাবেশে তিনি বলেন, “আর আমরা শুধু প্রতিবাদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকব না। আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুলব এবং তাদের চূড়ান্ত পরাজয় নিশ্চিত করেই ঘরে ফিরব।

“গতকাল ঢাকার রাজপথে তাণ্ডব চালানো হয়েছে, নৈরাজ্য সৃষ্টি করা হয়েছে। বাংলাদেশের মানুষের জানমাল নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হয়েছে। তারা দেশের মানুষকে আক্রান্ত করেছে। গণমাধ্যমের কর্মীদের উপর নৃশংস হামলা করা হয়েছে। সাংবাদিকরা নিউজ করতে গিয়ে নিজেরাই নিউজ হয়ে ফিরে এসেছে। আমাদের স্বপ্নের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। ছাত্র সমাজের প্রতি আমাদের আহ্বান আপনারা সোচ্চার থাকবেন।”

রাজধানীতে শনিবার বিএনপি, জামায়াত ও আওয়ামী লীগ সমাবেশের ডাক দিয়েছিল। বিএনপির সমাবেশের একপর্যায়ে কাকরাইলে সংঘর্ষ হয়। গাড়ি ভাঙচুর, বাসে আগুন ও পিটিয়ে পুলিশ হত্যার ঘটনাও ঘটে। সমাবেশে আসা বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর ‘হামলা’র প্রতিবাদে রোববার হরতালের ডাক দেয় বিএনপি ও জামায়াত।

এর প্রতিবাদে হরতালের দিন বিক্ষোভে ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম বলেন, “ইতিহাসের কী নিদারুণ পরিহাস, তারা আজ হরতাল ডেকেছে। তারা প্রহসনের হরতাল ডেকেছে। যারা আক্রমণকারী, যারা সন্ত্রাসী, যারা জনগণের জানমাল নিয়ে জুলুম করেছে, তারাই হরতাল ডেকেছে।”

বিএনপি গণতন্ত্র নিয়ে ‘ব্যবসা করছে’ মন্তব্য করে সাদ্দাম বলেন, “গণতন্ত্র ওদের কাছে পণ্যের মত। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের নামে অনির্বাচিত সরকারের দালালি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমরা মনে করি, বাংলাদেশের গণতন্ত্র নিয়ে প্রহসন যারা করতে চায়, তাদের বাংলাদেশে রাজনীতি করার কোনো অধিকার নেই।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন বলেন, “তারা আন্দোলনের নামে রাজপথে মানুষের জান মালের ক্ষতি করেছে। তাদের অতীতের আচরণ গতকালও প্রতিধ্বনিত হয়েছে। ২০১৩-১৪ সালে তারা সারা বাংলাদেশে যে ধরনের নৈরাজ্য সৃষ্টি করেছিল, ভীতি সঞ্চার করে ক্ষমতায় আসতে চেয়েছিল, তারা ঠিক একই কায়দায় এবারও ক্ষমতায় আসতে চায়।

“আমরা মনে করি, দেশরত্ম শেখ হাসিনার পাশে থাকা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। আমরা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে যেতে পারিনি। দেশরত্ম শেখ হাসিনার সংগ্রামে যদি আমাদের জীবন দিতে হয়, আমরা জীবন দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।”

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানের সঞ্চালনায় সমাবেশে ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজ মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক সাগর আহমেদ শামীম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম বাপ্পি ও সাধারণ সম্পাদক সজল কুণ্ডু বক্তব্য দেন।