নির্বাচন আর করবেন না লতিফ সিদ্দিকী

নির্বাচনে আর অংশ না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী।

সংসদ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 June 2013, 06:14 AM
Updated : 30 Sept 2014, 11:17 AM

নির্বাচনী রাজনীতি ইতি টানলেও শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুযায়ী দলীয় কার্যক্রমে সক্রিয় থাকবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার সংসদে বাজেটের ওপর আলোচনায় দাঁড়িয়ে লতিফ সিদ্দিকী বলেন, “সংসদীয় গণতন্ত্রে নির্বাচনী রাজনীতিতে আর অংশ নেবো না। তবে দলীয় রাজনীতিতে শেখ হাসিনা যে নির্দেশ দেবেন, তা সম্পন্ন করার চেষ্টা করবো।”

বক্তব্যে এই সিদ্ধান্তের কারণ স্পষ্ট না করলেও তিনি বলেছেন, “এখন রাজনীতিতে পরমত সহিষ্ণুতা নেই।”

টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতি) আসনের সংসদ সদস্য লতিফ সিদ্দিকীর বয়স এখন ৭০ বছর। তিনি শেখ হাসিনার এই সরকারে পাট ও বস্ত্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। এ নিয়ে চতুর্থবার সংসদ সদস্যের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি

২০০৭ সালে জরুরি অবস্থার সময় ‘সংস্কাররপন্থীদের’ বিরোধিতা করে শেখ হাসিনার পক্ষে যে কয়েকজন নেতা দৃঢ় অবস্থান নিয়েছিলেন, তার একজন লতিফ সিদ্দিকী।

সংসদে বক্তব্যে লতিফ সিদ্দিকী ’৮০ এর দশকে প্রবাসে থেকে শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার বিরোধিতা করার বিষয়টি স্বীকার করেন। 

“আমি দিল্লিতে উনাকে (শেখ হাসিনা) ৪২ পৃষ্ঠার চিঠি লিখে বলেছিলাম, ‘আমি আপনাকে সভাপতি হিসাবে সমর্থন করি না’। কিন্তু, পরে আমি আপনাকে আওয়ামী লীগ সভাপতি হিসাবে মেনে নিয়েছিলাম।”

লতিফ সিদ্দিকী দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত। তার ছোট ভাই আব্দুল কাদের সিদ্দিকীও এক সময় আওয়ামী লীগে ছিলেন। পরে তিনি কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগ নামে আলাদা দল গড়েন।

সামরিক শাসনামলে অনেক দিন লতিফ সিদ্দিকীকে কারাগারে কাটাতে হয়। তার স্ত্রী লায়লা সিদ্দিকী এরশাদ আমলে জাতীয় পার্টির হয়ে মহিলা সংসদ সদস্য হয়েছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক