নাজিয়া জাবীনের ছড়াকবিতা: রইল নিমন্ত্রণ

কচু পাতায় টুকরো মানিক, কুরচি ফুলের মালা/ তুমি এলেই পরিয়ে দেব, দোপাটিয়ার বালা।

নাজিয়া জাবীননাজিয়া জাবীন
Published : 30 March 2024, 07:32 AM
Updated : 30 March 2024, 07:32 AM

ছোট্ট গাঁয়ে আমার বাড়ি

টিনের চালে বৃষ্টি,

নকশি পিঠা, শীতল পাটি

কি অপরূপ সৃষ্টি।

ছোট্ট গাঁয়ের মেঠো পথে

নাম না জানা ফুল,

কিশোরী মেয়ে কলসি কাঁখে

হাওয়ায় ওড়ে চুল।

গাঁয়ের ধারে পুকুর পাড়ে

খলসে, পুঁটি, কৈ,

মা, চাচিরা উঠোনেতে

ভাজছে মুড়ি, খৈ।

ছায়ায় ভরা গাঁ আমাদের

সবুজ বনের পাতা,

বয়াতিরা লেখেন যে গান

ভরিয়ে মনের খাতা।

সাঁঝ সকালে গাছের ছায়ে

উদাস করা বাঁশি

সন্ধ্যে হলেই আকাশ মাঝে

আলো ছড়ায় শশী।

অন্ধকারে জোনাক জ্বলে

পথ করে দেয় আলো,

তারায় তারায় মিতালি হয়

তোমরা কি তা জানো?

বৌ কথা কও পাখি ডাকে,

ডাকে ডাহুক, ফিঙ্গে,

মাচায় ভরা কচি শশা,

লাউ, করলা, ঝিঙ্গে।

হালকা হাওয়ায় পানশি বেয়ে

নাইওরি যায় বৌ,

কদম, কেয়া থরে থরে

উছলে পড়ে মৌ।

ছোট্ট গাঁয়ে রূপাই নদী

রূপের যে নাই শেষ,

বৌ ঝিরা নদীর ঘাটে

উড়ায় কালো কেশ।

মিলে মিশে থাকি মোরা

মোদের ছোট গাঁয়ে,

আদর স্নেহ যত্নে রাখি

মোরা ভায়ে ভায়ে।

কচু পাতায় টুকরো মানিক

কুরচি ফুলের মালা,

তুমি এলেই পরিয়ে দেব

দোপাটিয়ার বালা।

সবুজ সরল গাঁয়ের জীবন

সুখের ছোঁয়া নিয়ো,

শহর থেকে বন্ধুরা সব

হাত বাড়িয়ে দিয়ো।

প্রকৃতিরই ভালবাসায়

বেড়ে উঠি আমরা,

অল্পে খুশি সরল জীবন

শিখতে কি চাও তোমরা?

খোলা চিঠি পাঠিয়ে দিলাম

রইল নিমন্ত্রণ,

এসো কিন্তু বন্ধু সকল

উজাড় করে মন।